বাগেরহাটে হত্যার দায়ে ১ জনের মৃত্যুদণ্ড

মামলার নথি থেকে জানা যায়, বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার গাবরখালী গ্রামের হোসেন আলীর মেয়ে আয়না খাতুনকে (১৮) বিয়ের প্রলোভন দিয়ে পাশের খলিশাখালী গ্রামের দলিল উদ্দিনের বিবাহিত ছেলে আজাদ খান শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এতে ওই তরুণী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

পরে আজাদকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে আজাদ ২০১২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি আয়না খাতুনকে শ্বাসরোধে হত্যা করে চাড়াখালী গ্রামের বাবুল শেখের বাড়ির বাগানের একটি ডোবায় লাশ ফেলে দেয়।

পরদিন বাবুল তার বাগানে লাশ দেখে পুলিশে খবর দেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী শরৎ চন্দ্র মজুমদার বলেন, এই ঘটনায় কচুয়া থানার সহকারী উপপরিদর্শক মিয়ারত হোসেন বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক জিয়াউর রহমান আসামি আজাদকে গ্রেপ্তার করেন এবং তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি আজাদ খানের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

মামলার বিচারে আদালত দু’জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করে।

এজি/এসআই/বিআই/০৬ জুন, ২০১৬

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)