বাগেরহাটে দস্যুতার অভিযোগে চোখ উপড়ে দেওয়ার চেষ্টা

বাগেরহাটের রামপালে শুকুর আলী হাওলাদার (৪০) নামে এক ব্যক্তির দুই চোখ খুচিয়ে নষ্ট করে দিয়েছে জনতা। তার বিরুদ্ধে সুন্দরবনে দস্যুতার অভিযোগ রয়েছে।

শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে রামপাল উপজেলার বাইনতলা ইউনিয়নের বারুইপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ শুকুরকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে রামপাল উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

শুকুর হাওলাদার উপজেলার বারুইপাড়া গ্রামের মৃত দলিল উদি্দন হাওলাদারের ছেলে।

রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে জানান, শুকুরের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে সুন্দরবনে দস্যুতার আভিযোগ রয়েছে। তার বিরুদ্ধে রামপাল থানায় ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে একাধিক মামলা রয়েছে।

বনদস্যু শুকুর সুন্দরবন থেকে বাড়ি ফিরেছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে গ্রামবাসী জড়ো হয়ে তাকে ধরে গনপিটুনি দেয়। এসময় বিক্ষুব্দ গ্রামবাসী শুকুরের দুই চোখ খুচিয়ে রক্তাক্ত করে। খবর পেয়ে ভোরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

তিনি আরও বলেন, শুকুর সুন্দরবনে ডাকাতিসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধ কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ার পর থেকে বারইপাড়া গ্রামের মানুষ ক্ষুব্দ ছিল। দস্যুতায় জড়িয়ে পড়ার পর থেকে সে খুব একটা এলাকায় আসত না।

বর্তমানে পুলিশ প্রহরায় রামপাল স্বাস্থ কেন্দ্রে তার চিকিৎসা চলে বলে জানান তিনি।

রামপাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক উৎপল দেবনাথ শনিবার (০২ মে) সকালে বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, দুই চোখ রক্তাক্ত অবস্থায় শুকুরকে পুলিশ ভর্তি করে। তার দুই চোখ খুচিয়ে দেয়া হয়েছে।

তার দুই চোখ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তবে নষ্ট হয়েছে কিনা তা পরীক্ষা ছাড়া বলা যাচ্ছেনা।

০২ মে ২০১৫ :: স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এজি/আই হকএনআর এ/বিআই
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1300 Posts)