সর্বশেষ
প্রচ্ছদ / খবর / সন্তানদের হত্যার ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ

সন্তানদের হত্যার ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ

Bagerhat-Morrelgong-Pic-1(03-06-2015)বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে দুই শিশু সন্তানকে জবাই করে হত্যার ভয় দেখিয়ে এক গৃহবধূকে (২৫) ধর্ষণ এবং মালামাল লুটের ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনার দু’দিন পর মঙ্গলবার রাতে অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে।

৩১ মে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার বহরবুনিয়া ইউনিয়নের উত্তর ফুলহাতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তারকৃত হাওলাদার মিজানুর রহমান ওরফে খোকা (৪৩) উত্তর ফুলহাতা গ্রামের আব্দুস সাত্তার হাওলাদারের ছেলে। এলাকায় সে খোকা চোরা নামে পরিচিত বলে পুলিশ জানিয়েছে।

বুধবার (০৩ জুন) বিকেলে বাগেরহাটের জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম (জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট) জাহিদুল আজাদের আদালতে খোকা ওই নারীকে ধর্ষণ করার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবাববন্দি দিয়েছেন। পরে আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণ করেছে।

এ ঘটনায় ধর্ষিতার স্বামী বাদী হয়ে গ্রেপ্তারকৃত মিজানুর রহমান ওরফে খোকাকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মোরেলগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন।

মামলার বাদী বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, গত ৩১ মে রাত ৮টার দিকে খোকা আমার বাড়ির দোতালা ঘরের পেছন থেকে মই দিয়ে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে। এসময় আমি বাইরে থাকায় আমার স্ত্রী এবং ছোট দুই সন্তান ছাড়া আর কেউ বাড়িতে ছিলো না।

‘আমার স্ত্রী ঘরে লোকের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকচিৎকারের চেষ্টা করলে দুই সন্তানকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করে হত্যার হুমকি দেয় খোকা। পরে সে ধারালো অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে জোরপূর্বক আমার স্ত্রীকে ধর্ষণ করে।’

ধর্ষণের পর আমার স্ত্রীর কানের দুল, আংটি ও বালাসহ মোট আড়াই ভরি সোনার গহণা নিয়ে সে পালিয়ে যায় সে।

তিনি আরো বলেন, রাতে ফুলহাতা বাজারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাড়ি ফিরলে স্ত্রী আমাকে ঘটনা খুলে বলে। কিন্তু লোকলজ্জার কথা চিন্তা করে আমার প্রথমে বিষয়টি পুলিশকে জানাতে ভয় পাচ্ছিলাম।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, নিজের সম্মানহানির কথা চিন্তা করে ঘটনার দুই দিন পর ওই পরিবার পুলিশকে জানায়। তাদের দেয়া অভিযোগের ভিত্তিতে রাতেই অভিযান চালিয়ে মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছি। ধর্ষিতা নারী খোকাকে সনাক্ত করেছেন।

পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে খোকা ওই নারীকে ধর্ষণ করার কথা স্বীকার করে। দুপুরে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ধর্ষণের স্বীকার ওই নারীর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

এর আগে গত ২৫ মে বাগেরহাট সদর উপজেলার হেদায়েতপুর গ্রামে সাত বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়। এই ঘটনায় পুলিশ একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

০৩ জুন ২০১৫ :: অলীপ ঘটক, সিনিয়র স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আই হকএনআরএ/বিআই

About বাগেরহাট ইনফো নিউজ