সুন্দরবনে দুই দস্যু বাহিনীর বন্দুকযুদ্ধ, আহত ১

Mongla-Pic-1(08-08-2015)সুন্দরবনে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই বনদস্যু বাহিনীর মধ্যে ঘন্টাব্যাপী বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। এসময় গুলিবিদ্ধ হয়েছে এক দস্যু।

শনিবার (০৮ আগস্ট) সকালে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের ‘নন্দবালা’ খাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ দস্যু জাকির ফরাজীকে (৪৩) উদ্ধার করে মংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সে মাস্টার বাহিনীর সক্রিয় সদস্য বলে জেলেরা জানিয়েছেন।

জাকির বাগেরহাটের মংলায় চিলা ইউনিয়নের গাববুনিয়া গ্রামের ওসমান ফরাজির ছেলে।

ঘটনাস্থলের কাছে মাছ ধরতে থাকা জেলে হান্নান হাওলাদার ও মো. ইসমাইল জানান, ওই এলাকায় আগে থেকেই বনদস্যু মাস্টার বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান নিয়ে ছিলেন। শুক্রবার রাতে ‘নন্দবালা’ খাল থেকে তারা মুক্তিপণের দাবিতে কিছু জেলেকে অপহরণও করে।

শনিবার সকাল ৭টার দিকে বনদস্যু শিপন বাহিনীর সদস্যরা সেখানে  ঢুকে পড়ে। এ সময় আধিপত্য নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে থেমে থেমে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী বন্দুকযুদ্ধ চলে। একপর্যায়ে মাস্টার বাহিনীর সদস্য জাকির গুলিবিদ্ধ হলে তাকে ফেলে বাহিনীর অপর সদস্যরা পালিয়ে যায়।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) মো. বেলায়েত হোসেন দস্যুদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গুলিবিদ্ধ দস্যু জাকির পালিয়ে যাওয়ার সময় জেলেরা তাকে ধরে পুলিশে দিযেছে।

এদিকে, দুই বাহিনীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ চলাকালে মাস্টার বাহিনীর হাতে মুক্তিপণের দাবিতে আটক জেলে এনামুল তালুদার পালিয়ে আসেন। তিনি মংলার মিঠাখালী এলাকার বাসিন্দা।

মংলা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মঞ্জুর এলাহি বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে জানান, আহত দস্যুকে মংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তার গায়ে ছড়া গুলি লেগেছে। এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

০৭ আগস্ট :: স্টাফ (মংলা) করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আইএইচ/এনআরএ/বিআই
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1300 Posts)