সুন্দরবনে ফের অগ্নিকান্ড

SundorBon-Fire-28-03-2016Pic-1 ১৭ দিনের মাথায় সুন্দরবনে ফের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এবার আগুন লেগেছে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের নাংলি ফরেস্ট ক্যাম্পের কাছে ‘আব্দুল্লাহর ছিলা’ এলাকায়।

বুধবার (১৩ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বনকর্মীরা ওই এলাকায় ধোঁয়া দেখতে পায়।

বনবিভাগের ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আগুন লাগার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে বনবিভাগ ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয় এবং স্থানীয়দের সঙ্গে নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। তবে কিভাবে আগুন লেগেছে বা কি পরিমাণ এলাক জুড়ে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে তা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি তিনি।

এর আগে গত ২৭ মার্চ নাংলি ক্যাম্প এলাকার বনে আগুন লেগে এক একর বনভূমি পুড়ে যায়।

ওই সময় বনকর্মকর্তারা বলেছিলেন, সুন্দবনের যে এলাকায় আগুন লেগেছে সেখানে বনের তেমন কোনো মূল্যবান গাছপালা নেই। প্রাথমিকভাবে দেখা যাচ্ছে এখানে লতাগুল্ম প্রজাতির কিছু গাছ রয়েছে, যেগুলো ‘বলা গাছ’ নামে পরিচিত।

অগ্নিকাণ্ডের এলাকা থেকে ফিরে বন সংলগ্ন বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের জুবায়ের কবির বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, এবারের আগুন আগের বাড়ের চেয়ে বেশ বড় ধরনের।

বারবার আগুন লাগার রহস্যজনক। আগুন লাগানো হতে পারে বলেও সন্দেহ স্থানীয় ওই বাসিন্দার।

স্থানীয় ধানসাগর ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য জাকির হোসেনও আগ্নিকাণ্ডের বিষয়টি রহস্যজনক বলে মন্তব্য করেছেন।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) সাইদুল ইসলাম বলেন, আমি দুর্ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। আগুন নিয়ন্ত্রণে বন বিভাগের পাশাপাশি টাইগার টিম এবং স্থানীয়রা কাজ করছে। ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিটও ঘটনাস্থলে পৌঁছে কাজ শুরু করেছে। তারা ফায়ার লাইন কেটে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে।

ফায়ার সার্ভিসের বাগেরহাট স্টেশন কর্মকর্তা স্বপন কুমার ভক্ত বলেন, মোরেলগঞ্জ ও বাগেরহাটের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করেছে। বনের নতুন এলাকায় যাতে আগুন ছড়িয়ে না পড়ে এজন্য ফায়ার লাইন কাঁটা হচ্ছে।

বিশ্বের সর্ব বৃহৎ ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চল সুন্দরবনের শরণখোলা ও চাঁদপাই রেঞ্জ এলাকায় প্রায় প্রতিবছরই শুষ্ক মৌসুমে (বসন্তের শেষ ও গ্রীষ্ম শুরুতে) অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে। এ সময় তীব্র বাতাসের কারণে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

এর আগে ২০১৪ সালে চাঁদপাই রেঞ্জের গুলিশাখালী ক্যাম্পসংলগ্ন পয়ষট্টি ছিলা এলাকায় বনে আগুন লেগে অন্তত পাঁচ একর বনভূমি পুড়ে যায়। ২০১১ সালে ধানসাগর স্টেশনের নাংলি ক্যাম্প এলাকায় আগুনে পুড়ে যায় দুই একর বনভূমি।

সর্বশেষ চলতি বছরের ২৭ মার্চ আগুন লাগার পর কারণ ও ক্ষয়ক্ষতি অনুসন্ধানে গঠিত তদন্ত কমিটি কঠোর গোপনীয়তার মধ্যে ৩ এপ্রিল বিভাগীয় বন কর্মকর্তার কাছে সেই তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন।

১৩ এপ্রিল :: স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আইএইচ/এনআরএ/বিআ
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1321 Posts)