সুন্দরবনে আগুন দেওয়ার অভিযোগে আরও ১ মামলা

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) বিকালে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের কর্মকর্তা (এসও) সুলতান মাহমুদ বাদী হয়ে বন আইনের ১৯২৭ সালের ২৬ (ক) ও (গ) ধারায় মামলাটি দায়ের করেন।

এ নিয়ে সুন্দরবনে আগুনের ঘটনায় বনবিভাগ এক সপ্তাহের মধ্যে দু’টি মামলা করল।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) সাইদুল ইসলাম বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বলেন, সোমবার (১৮ এপ্রিল) আগুন দেওয়ার অভিযোগে বন আইনে এ মামলাটি করা হয়েছে।

মামালার বরাত দিয়ে শরণখোলা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রহমান বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, আসামিদের বাড়ি শরণখোলা উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের উত্তর রাজাপুর গ্রামে। যারা সুন্দরবনের ওপর নির্ভরশীল। বিভিন্ন সময়ে এরা সুন্দরবনের ক্ষতি করেছেন, যা স্থানীয় মানুষ জানে।

তিনি আরও বলেন, সুন্দরবনের জীববৈচিত্রসহ প্রাণীকূলের ক্ষতি করতে ১৩ এপ্রিল প্রথমবারের মতো ওই চক্রটি পরিকল্পিতভাবে অগ্নিসংযোগ করে, যার প্রমাণ বনবিভাগের হাতে রয়েছে।

ওই তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে বনবিভাগ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে। এতে চক্রটি ক্ষুব্ধ হয়ে ১৮ এপ্রিল আবারও সুন্দরবনে পরিকল্পিতভাবে আগুন লাগায়। এতে বনের প্রায় এক একর বনভূমির নলখেগড়া ও বলা জাতীয় গাছপালা পুড়ে যায়।

বনবিভাগের দায়ের করা মামলার এজাহারভূক্ত আসামিদের ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।

গত এক মাসের মধ্যে (২৭ মার্চ, ১৩ ও ১৮ এপ্রিল) তিন দফায় সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের নাংলি ফরেস্ট ক্যাম্প, পঁচাকোড়ালিয়া, আব্দুল্লাহর ছিলা ও নাপিতখালী এলাকায় আগুনে প্রায় দশ একর বনভূমি পুড়ে যায়।

ডিএফও সাইদুল ইসলাম বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, বারবার দুর্ঘটনায় কারণে সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর এলাকাটি ঝুঁকি মনে করা হচ্ছে। এজন্য বন বিভাগ বিশেষ সতর্কতা জারি করেছে।

এছাড়া বন সংলগ্ন লোকালয়ের জনগণের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে বন বিভাগ। তারও বন বিভাগকে সহযোগীতার আশ্বাস দিয়েছে বলে ডিএফও জানান।

১৯ এপ্রিল :: স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আইএইচ/এনআরএ/বিআই
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1265 Posts)