বাল্যবিয়ে: কাজী ও কনের বাবার দণ্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাটের কচুয়ায় এসএসসি পরীক্ষার্থী এক কিশোরীকে বাল্যবিয়ে দেওয়ার দায়ে কনের বাবা এবং বিয়ে পড়ানো কাজীকে অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (৭ মার্চ) দুপুরে জেলার কচুয়া উপজেলার বিলকুল এলাকায় অভিযান চালিয়ে কাজী ও কনের বাবাকে মোট ৮০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- কাজী বাগেরহাট পৌরসভার সরুই এলাকার আছির উদ্দিনের ছেলে আবু তৈয়ব এবং কনের বাবা কচুয়া উপজেলার ফতেপুর গ্রামের মোজ্জাফর হোসেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেড নাজিম উদ্দীন বলেন, বাল্যবিয়ে দেয়া হচ্ছে এমন খবর পেয়ে দুপুরে কচুয়ার বিলকুল গ্রামের প্রয়াত আব্দুল মনসুর নকিবের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। ওই বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি একদিন আগে সোমবার (৬ মার্চ) আব্দুল মনসুরের ছেলে নকিব পারভেজের সঙ্গে ফতেপুরের মোজ্জাফর হোসেনের অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে। মেয়েটি সদ্য শেষ হওয়া এসএসসি পরীক্ষার্থী।

মেয়েটির প্রকৃত বয়স ১৬ বছর ৬ মাস হলেও এফিডেভিট করে বিয়েতে তার বয়স বাড়িয়ে ১৮ বছর দেখানো হয়েছে। বিয়ের ক্ষেত্রে এফিডেভিট হণযোগ্য না হলেও কাজী আবু তৈয়ব ওই বিয়ে পড়ান।

এ ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বাল্যবিয়ে পড়ানোর দায়ে কাজী আবু তৈয়বকে ৫০ হাজার টাকা এবং কনের বাবাকে ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এইচ/এসআই/বিআই/০৭ মার্চ, ২০১৭
** রামপালে চার মাদকসেবীর দণ্ড

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1300 Posts)