শিক্ষার্থীকে কান ধরে ক্যাম্পাসে ঘোরানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাট মেরিন ইনস্টিটিউটের খাবার পানির সংকটের কথা তুলে ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দেওয়াকে কেন্দ্র করে একছাত্রকে কান ধরে ক্যাম্পাসে ঘোরানোর অভিযোগ উঠেছে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (১৬ মে) দুপুরে শিক্ষার্থীদের মাঝে ওই খবর ছড়িয়ে পড়লে তারা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে বাগেরহাট ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজির অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলামের অপসরণ ও শাস্তি দাবিতে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করে ক্যাম্পাসের সামনের বাগেরহাট-পিরোজপুর সড়ক অবরোধ করে।

শহরতলীর দড়াটানা সেতুর কাছে বৈটপুর এলাকায় শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে প্রায় এক ধরে যান চলাচল বন্ধ থাকে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা জানান, সম্প্রতি ক্যাম্পাসে খাবার পানির তীব্র সংকট দেখা দেয়। বিষয়টি তুলে ধরে আমাদের প্রথম বর্ষের এক সহপাঠী ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস (পোস্ট) দিলে অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম স্যার জানতে পারেন। এতে ক্ষেপে গিয়ে অধ্যক্ষ স্যার দুপুরে শ্রেণী কক্ষে এসে রাকিব নামের ওই ছাত্রের কাছ থেকে অপরাধ করেছে এই মর্মে স্বীকারোক্তি নেন। পরে তাকে কান ধরিয়ে পুরো ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করায় এবং প্রতিটি শ্রেণি পক্ষে গিয়ে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করেন।

এ ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর মা অধ্যক্ষের কাছে ক্ষমা চাইতে গেলে তিনি ওই অভিভাবকের সঙ্গেও খারাপ আচরণ করেন। এর পর অধ্যক্ষের অপসরণ ও বিচার দাবি তারা বিক্ষোভ শুরু করে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ক্যাম্পাসে নিম্নমানের খবার দেওয়া হয়, পানির সমস্যা- এসবের প্রতিবাদ করলে অধ্যক্ষ তাদের সাথে দুর্ব্যবহার করে।

এসব বিষয়ে বাগেরহাট ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজির অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি কোন কথা বলতে চাননি।

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাতাব উদ্দিন বলেন, শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করেছেন—এমন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এ সময় শিক্ষার্থীদের সমস্যার সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিলে তারা সড়ক থেকে অবরোধ তুলে নেন।

এইচ//এসআই/বিআই/১৬ মে, ২০১

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)