স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ, কনের বাবার কারাদণ্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাট সদর উপজেলার এক স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ের আয়োজন বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

শনিবার (১১ নভেম্বর) বিকালে উপজেলার একটি গ্রামে ছাত্রীর বাড়িতে ওই বিয়ের আয়োজন করা হয়। ওই অপরাধে ছাত্রীর বাবাকে ১৫ দিনের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নূরুল হাফিজ ওই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

ইউএনও বলেন, সদর উপজেলার একটি গ্রামে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর বিয়ের আয়োজন করে তাঁর পরিবার। পার্শবর্তি একটি উপজেলার এক ছেলের সাথে বিকালে ওই স্কুলছাত্রীর বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। বিয়ের জন্য সব আয়োজন করে দুই পরিবার।

খবর পেয়ে দুপুর দুইটার দিকে বর আসার আগেই কনের ওই বাড়িতে পুলিশ নিয়ে অভিযান চালান ইউএনও নূরুল হাফিক। তিনি বিয়ের সব আয়োজন বন্ধ করেন এবং স্কুলছাত্রী​র বাবাকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন। এছাড়া মেয়ের মাকে এক হাজার টাকা জরিমানা দিয়ে ১৮ বছরের আগে মেয়ের বিয়ে দিবেন না এই মর্মে মুচলেকা নেওয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত এসকেন্দার মল্লিককে (৪০) কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ইউএনও বলেন, ওই বাড়িতে বিয়ের জন্য প্যান্ডেলসহ যাবতীয় আয়োজন করা হয়। অভিযানের খবর পেয়ে বরপক্ষ আর কনের বাড়িতে আসেননি।

এইচ//এসআই/বিআই/১১ নভেম্বর, ২০১৭

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1319 Posts)