কচুয়ার সাবেক ইউএনও, শিক্ষা কর্মকর্তাসহ ৫ জনকে হাইকোর্টে তলব

Hicortবাগেরহাটের কচুয়ায় একটি স্কুলের গভর্নিং বডির বিষয়ে আদালতের আদেশ অমান্য করায় করায় সাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও)সহ ৫ জনকে তলব করেছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও বিচারপতি মো.আতাউর রহমান খানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর আদালতে সশরীরে হাজির হয়ে তাদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে কেন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না?-এ বিষয়ে জবাব দিতে বলা হয়েছে।

৫ ব্যক্তি হচ্ছেন, তৎকালীন বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আশরাফুল ইসলাম, থানা শিক্ষা কর্মকর্তা মফিজুর রহমান, বোর্ড মনোনীত গভর্নিং কমিটির সদস্য দৌলতুন্নাহার, বিদ্যোৎসাহী সদস্য অ্যাডভোকেট ভবরঞ্জন ও তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শুধাংসু শেখর।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট শেখ আতিয়ার রহমান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আল আমিন সরকার।

বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার শহীদ আসাদ স্মৃতি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের গভর্নিং বডি গঠনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ২০১৩ সালে রিট করেন বডির শিক্ষক প্রতিনিধি জগন্নাথ দাশ।

এ আবেদনের শুনানি নিয়ে ওই বছরের ৬ মে হাইকোর্ট গভর্নিং বডির কার্যক্রমের ওপর এক মাসের স্থগিতাদেশ দেন। কিন্তু কমিটি আদালতের আদেশ না মেনে ওই সময়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দেন। পরে আবেদনকারী এ বিষয়ে আদালতকে আরেকটি আবেদনের মাধ্যমে তা অবহিত করেন।

আদালত এ আবেদন আমলে নিয়ে প্রধান শিক্ষকের নিয়োগও স্থগিত করে দেন এবং আদালত অবমাননার নোটিস জারি করেন। কিন্তু আদালতের নোটিসে বিবাদীরা সাড়া দেননি। এরপর রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি নোটিস পাঠানোর পর মঙ্গলবার ৫ জনের মধ্যে তিন জন উপস্থিত হয়ে সময় আবেদন করেন এবং একজন নোটিমের জবাব দেন।

পরে আদালত ১৫ সেপ্টেম্বর সশরীরে হাজির হয়ে তাদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে কেন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না এ বিষয়ে জবাব দিতে নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আইনজীবী শেখ আতিয়ার রহমান।

০২ সেপ্টেম্বর ২০১৪ :: সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এসআই হকনিউজরুম এডিটর/বিআই
ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)