মংলায় হরিণের মাংস রাখার ২ মাসের দণ্ড

বাগেরহাটের মংলায় ১০ কেজি হরিণের মাংসসহ আটক এক ব্যক্তিকে দুই মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম মংলা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহম্মদ নাজমুল হক বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে ওই দণ্ডাদেশ দেন।

দণ্ডাপ্রাপ্ত নিখিল চন্দ্র (৬৫) মংলা উপজেলার বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নের বৈরাগীখালী গ্রামের মৃত শশোধর চন্দ্রের ছেলে।

এর আগে বুধবার বেলা ১২টার দিকে বাগেরহাটের মংলা উপজেলার দিগরাজ বাজার থেকে ১০কেজি হরিণের মাংসসহ নিখিলকে আটক করে কোস্টগার্ড। পরে তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে আদালতের বিচারক ওই দণ্ডাদেশ দেন।

মংলার কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের লেফটেন্যান্ট রাহাতুজ্জামান বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, মংলা উপজেলার দিগরাজ বাজারে সুন্দরবন থেকে শিকার করে নিয়ে আসা হরিণের মাংস বিক্রি হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযানে যাই। সেখানে গিয়ে পাঁচটি পলিথিনে দুই কেজি করে রাখা মোট দশ কেজি হরিণের মাংসসহ নিখিল নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়।

পরে নিখিলকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম মোহম্মদ নাজমুল হক সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে তাকে দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেন। নিখিলকে বাগেরহাট জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

২২ এপ্রিল ২০১৫ :: স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আই হকএনআর এ/বিআই
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1300 Posts)