সুন্দরবনে ২০ জেলে ‘অপহরণ’

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) ভোরে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের হাড়বাড়িয়া সংলগ্ন ধানসিদ্ধির চর এলাকায় থেকে এই অপহরণের ঘটনা ঘটে।

জেলে অপহরণের খবরে উপকূল রক্ষীবাহিনী কোস্টগার্ড উদ্ধার অভিযান শুরু করলেও দুপুর ১টা পর্যন্ত অপ‎হ্নত কাউকে উদ্ধার করতে পারেনি তারা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে মংলার চিলা ইউনিয়নের এক ইউপি সদস্য জানান, এক সপ্তাহ আগে মংলা উপজেলার পাঁচ জেলেসহ অন্তত ৩০ জন জেলে হারবাড়িয়া নিচে ধানসিদ্ধির চর এলাকায় মাছ ধরতে যায়। সেখানে মাছ ধরার সময় ভোরে বনদস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর সদস্যরা তাদের উপর হামলা চালায়, মারধর করে। এসময় অস্ত্রের মুখে অন্তত ২০ জনকে তুলে নিয়ে যায়।

অপহরণ করা জেলেদের বাড়ি বাগেরহাটের মংলা, রামপাল ও সাতক্ষীরা জেলায় বলে জানান তিনি।

তবে, দস্যুরা অপ‎‎হ্নত জেলেদের মুক্তিপণ হিসেবে কোন চাঁদা দাবি করেছে কিনা দুপুর পর্যন্ত স্থানীয় জেলে-মহাজন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তা নিশ্চিত করতে পারেনি।

এর পাঁচ দিন আগে গত শুক্রবারও (০৯ সেপ্টেম্বর) একই এলাকা থেকে ২০ জেলেকে অপহরণ করেছিল সুন্দরবন আরেক দস্যু দল সাগর বাহিনী।

শুক্রবার ভোরে সাগর বাহিনীর হাতে অপহৃত জেলেরা জনপ্রতি ১২ হাজার টাকা মুক্তিপন দিয়ে ফিরে এসেছে বলে দাবি করেন ওই ইউপি সদস্য।

দস্যুদের মুক্তিপন দিয়ে ফিরে আশা জেলেদের বাড়ি বাগেরহাটের মংলা উপজেলার উলুবুনিয়া, দক্ষিণ কাইনমারি, কলাতলা কেয়াবুনিয়া ও রামপাল উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।

কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের স্টাফ অফিসার (অপারেশনস্) লেফটেন্যান্ট এম ফরিদউজ্জামান খান বলেন, বনদস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর সদস্যরা ২০ জেলেকে অপহরণ করার খবর পেয়ে কোস্টগার্ডের হারবাড়িয়া, নলিয়ান ও কোকিলমনির তিনটি কন্টিনজেন্ট ওই এলাকায় অভিযান শুরু করেছে।

এছাড়া কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের একটি বিশেষ দলও সেখানে পাঠানো হয়েছে। তবে এখনো কাউকে উদ্ধার করা যায়নি।

এজি/এসআই/বিআই/১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

সুন্দরবনে মাছ ধরতে গিয়ে ২০ জেলে অপহৃত

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)