সুন্দরবন থেকে অপহৃত ৭ জেলে উদ্ধার, হদিস মেলেনি শুক্রবার রাতে অপহৃতদের

পূর্ব সুন্দরবন থেকে দস্যু বাহিনীর হাতে জিম্মি সাত জেলেকে উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড।

কোস্ট গার্ডের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, জলদস্যু রুবেল বাহিনী তাদের অপহরণের পর মুক্তিপণের জন্য প্রায় এক সপ্তাহ ধরে জিম্মি করে রেখেছিল।

সোমবার সকাল সাড়ে ১১টায় কোস্ট গার্ড সদস্যরা তাদের উদ্ধারে আভিযান চালায়। তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে জলদস্যুরা সুন্দরবনের গভীরে পালিয়ে যায়। এরপরেই অপহৃতদের উদ্ধার করা হয়।

কোস্টগার্ডের শরণখোলা ক্যাম্প ইনচার্জ চিফ পেটি অফিসার আনিসুর রহামান আমাদের জানান, আজ সকালে কোস্টগার্ডের পশ্চিম জোনের অপারেশন কমান্ডার শরিফুল হক খাঁনের নেতৃত্বে একটি টিম পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জ এলাকার পৃথক দু’টি স্থান থেকে দস্যু রুবেল বাহিনীর হাতে জিম্মি সাত জেলেকে উদ্ধার করে।

উদ্ধার করা জেলেরা হচ্ছেন- শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে আব্দুল হাকিম(২০), পাথরঘাটার আনিচ খাঁনের ছেলে মো. বাদল খান(২৭), পিরোজপুরের মোসলেম আলীর ছেলে মো. এনায়েত (৪২)(২৫),শুকুর আলীর ছেলে মো. ফেরদৌস ব্যাপারী(১৮), মেহের আলীর ছেলে মো. সালাম বাওয়ালী(৩৫), শুকুর আলীর ছেলে মো. রফিক ও মঠবাড়িয়ার শাপলেজার গামা কাজীর ছেলে সোহাগ কাজী(১৫)।

উদ্ধার কৃতদের বিকেল পাঁচটায় কোস্টগার্ডের শরণখোলা ক্যাম্পে আনার পর স্ব-স্ব বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

তবে শুক্রবার রাতে সাগরের ফেয়ার বয়া এলাকা থেকে অপহৃত জেলেদের এখনো কোনো হদিস মেলেনি।
উল্লখ, শুক্রবার রাতে বঙ্গোপসাগরে ফেয়ার বয়া এলাকা থেকে জেলেবহরে হামলা চালিয়ে অন্তত ২০ জেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় একটি দস্যু দল।

বাগেরহাট ইনফো ডেস্কWriter: বাগেরহাট ইনফো ডেস্ক (1852 Posts)