রামপালে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ছাত্রলীগ কর্মীর মৃত্যু

বাগেরহাটের রামপালে চিংড়িঘের নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত রফিকুল ইসলাম (২২) নামে এক ছাত্রলীগ কর্মী শুক্রবার দুপুরে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

গত ২৬ মার্চ সকালে তিনি প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হলে মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিহত রফিকুল ইসলাম রামপাল উপজেলার শ্রীফলতলা গ্রামের ফজলু শেখের ছেলে এবং উপজেলা ছাত্রলীগের একজন কর্মী।

নিহতের স্বজনেরা জানান, রফিক শিকারী, বাইতুন নূরী ও রশিদ সেখের নেতৃত্বে ১২/১৪ জনের এক দল হামলাকারী এ হামলা চালায়। হামলাকারীদের কেউ কেউ সুন্দরবনের কাঠ পাচারের সাথেও যুক্ত। তারা জানান, এ ঘটনায়  গুরুতর আহত তার পিতাও আসংকা জনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম এই মৃত্যু সংবাদ নিশ্চিত করে জানান, শ্রীফলতলা মৌজায় সাত বিঘার একটি চিংড়ি ঘের নিয়ে ফজলু শেখের সাথে স্থানীয় ভূমিহীণদের বিরোধ চলছিলো।

রফিকের বাবা ফজলু শেখের উদ্ধতি দিয়ে তিনি বলেন, ২৬ মার্চ সকালে ফজলু শেখ ও তার ছেলে রফিকসহ দশ-বারো জন ঐ চিংড়ি ঘেরে যান। এ সময় ঐ ঘেরে থাকা একদল লোক তাদের উপর হামলা চালায়। এই ঘটনায় রফিক মাথায় গুরুতর আঘাত পান। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার দুপুরে রফিক মারা যান।

এদিকে নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সূত্র জানায়, প্রভাবশালী একটি মহল প্রকৃত অপরাধীদের রক্ষার জন্য নানাভাবে তদবীর শুরু করেছেন।

তবে পুলিশ সুপার খোন্দকার রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, অপরাধীরা যত শক্তিশালী হোক না কেন তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।

শুক্রবার রাতে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি।

//আহাদ হায়দার ও অলীপ ঘটকের সহায়তায় ইনজামামুল হক: বাগেরহাট//

বাগেরহাট ইনফো ডেস্কWriter: বাগেরহাট ইনফো ডেস্ক (1854 Posts)