জামায়াত নেতা ইউসুফ গ্রেফতার, মোরেলগঞ্জে আনন্দ মিছিল

মুক্তিযুদ্ধের সময় রাজাকার বাহিনীর প্রতিষ্ঠাতা ও জামায়াতের সিনিয়র নায়েবে আমীর একেএম ইউসুফ গ্রেফতার হওয়ায় বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে আনন্দ মিছিল হয়েছে।

রোববার বিকেলে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এ আনন্দ মিছিল বের করে। পরে মিছিল শেষে কাপুড়ে পট্টিতে এলাকায় সমাবেশ করে তারা।

উল্লেখ, রাজাকার বাহিনীর প্রতিষ্ঠাতা ও জামায়াতের সিনিয়র নায়েবে আমীর একেএম ইউসুফ ১৯৭১ সালে বাগেরহাটের কচুয়া, রামপাল, শরনখোলা ও মোরেলগঞ্জে লুণ্ঠন, গণহত্যা, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ, ধর্মান্তরিত করাসহ বিভিন্ন মামলা রয়েছে। এসব ঘটনা তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।

একেএম ইউসুফের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালের ২৮ এপ্রিল মোড়েলগঞ্জ সন্ন্যাসী এসপি রশিদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে মাঠে ৩০ থেকে ৩৫ জনকে জোর করে রাজাকার বাহিনীতে যোগদান করানোর অভিযোগ মেলে। এছাড়াও ১৭ মে সকালে ইউসুফসহ ৪০ থেকে ৪৫ জন মোড়েলগঞ্জ বন্দরে অগ্নিসংযোগ ও ৪ থেকে ৫শ’ দোকান লুটপাট করে।

১৯ মে তার নির্দেশে রাজাকার বাহিনী মোড়েলগঞ্জে ৫ জন ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করে। কচুয়া উপজেলা শাখারীকাঠী গ্রামের দুইশ’ লোককে ধর্মান্তরিত করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এছাড়া রামপাল উপজেলার ডাকরা গ্রামের প্রায় ৭শ লোককে গণহত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে তরা বিরুদ্ধে।

১২.০৫.২০১৩ :: বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।

ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)