ডুবে আছে মোরেলগঞ্জ; কৃষি খাতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

বঙ্গপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ ও পূর্ণীমার প্রভাবে গত কয়েক দিন ধরে চলতে থাকা অবিরাম বৃষ্টি ও জোয়ারের পানি স্বাভাবিকের চেয়ে ৫/৬ফুট বৃদ্ধি পাওয়ায় উপকূলীয় উপজেলা বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার কয়েক হাজার পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

BagerhatNews30.05.13(6)পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে প্রায় ৪শ’ হেক্টর আউশ ধানী জমির এবং ১৭৫ হেক্টর জমির বীজতলা। আরো ৩/৪দিন এ অবস্থায় থাকলে কৃষি খাতের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির হবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা প্রসেনজিৎ মিস্ত্রী।

অপরদিকে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ নাজমুল হুদা বাগেরহাট ইনফোকে জানান, মোরেলগঞ্জে ১২হাজার ৮শ’ হেক্টর জমিতে বাগদা ও ৫শ’১২ হেক্টর জমিতে গলদা চিংড়ির চাষ রয়েছে। নিম্নাঞ্চলের কিছুকিছু ঘের প্লাবিত হয়েছে তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান এখনো নিরুপন করা যায়নি।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আশরাফ হোসেন বাগেরহাট ইনফোকে বলেন, কমপক্ষে ৯শ’ হেক্টর জমির মৎস্য ঘের পানিতে ডুবে গেছে এবং নির্মানাধীন ও চলমান সংস্কার কাজের আওতায় থাকা কিছু কাচা রাস্তার ক্ষতি হয়েছে। সব মিলিয়ে কোটি টাকার ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে বলে তিনি আসংকা প্রকাস করেন।

উপজেলার মাঝখান থেকে বয়ে যাওয়া পানগুছি নদীর তীরে অবস্থিত মোরেলগঞ্জ উপজেলা সদর শহরসহ কমপক্ষে ২৫টি গ্রাম দু’বেলা জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হচ্ছে।

সিডর ও আইলায় ব্যপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ এ উপজেলার শহরটি রক্ষার জন্য কোন বেড়ীবাধ না থাকায় স্বাভাবিক জোয়ারেও ডুবে যায় এ শহর। দুর্যোগকালীন সময়ে শহরের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, সরকারী অফিসসহ অসংখ্য হাট বাজার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ২/৩ফুট পানিতে তলিয়ে যায়।

এসব এলাকার মধ্যে রয়েছে, মোরেলগঞ্জ পৌরসভা, খাউলিয়া, কুমারখালী, সন্ন্যাসী, পাঠামার, বদনীভাঙ্গা, কালিকাবাড়ি, শ্রেনীখালী, বহরবুনিয়া, শোনাখালী, পঞ্চকরণ, হেড়মা, তেলীগাতি, ফুলহাতাসহ কমপক্ষে ২৫টি গ্রামের মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে।

৩০-০৫-২০১৩ ::  মশিউর রহমান মাসুম
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।

ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)