রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিলের দাবিতে সেপ্টেম্বরে লংমার্চ ঘোষণা

ভারতীয় কোম্পানি ও দেশী কিছু সুবিধাভোগীদের স্বার্থে সরকার বাগেরহাটের রামপাল বিদ্যুৎ প্লান্টের মাধ্যমে সুন্দরবন ধ্বংসের পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ করেছে তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি।

রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বাতিলের দাবিতে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সেপ্টেম্বরে লংমার্চ ঘোষণা।

রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বাতিলের দাবিতে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সেপ্টেম্বরে লংমার্চ ঘোষণা।

এ প্রকল্প বাতিলসহ সাত দফা দাবিতে কমিটির নেতারা আগামী ২৪ থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর ঢাকা-রামপাল লংমার্চ কর্মসূচির ঘোষণা করেছে।

রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন প্রকল্প নিয়ে নিজের অবস্থান তুলে ধরতে সোমবার রাজধানীতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক লিখিত বক্তব্যে কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে প্রকল্পের বিভিন্ন ক্ষতি দিক তুলে ধরে আনু মুহাম্মদ বলেন, “এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে সুন্দরবনের আশেপাশের পরিবেশ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। রামপাল বিদ্যুৎ প্লান্ট নিয়ে বাংলাদেশ ও ভারত সরকার যে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে, তাতে দুই দেশের সরকার যৌথভাবে আন্তর্জাতিক বিধি লঙ্ঘন করে পৃথিবীর বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ বন প্রাণবৈচিত্র্যের আধার এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের মানুষের সবচেয়ে শক্তিশালী প্রাকৃতিক রক্ষা বন সুন্দরবন ধ্বংসের ব্যবস্থা পাকাপোক্ত করেছে।”

http://www.facebook.com/bagerhatinfoআনু মুহাম্মদ জানান, সুন্দরবন ধ্বংস করে রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিল করে বিদ্যুৎ সংকট সমাধানে জাতীয় কমিটির সাত দফা দাবি পূরণে আগামী ২৪ থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর ঢাকা-রামপাল লংমার্চ অনুষ্ঠিত হবে।

এ সময় সংবাদ সম্মেলন থেকে ভারতীয় কোম্পানির সঙ্গে করা চুক্তি দ্রুত বাতিল করে প্রকল্প বন্ধের দাবি জানানো হয়।

০৩-০৬-২০১৩ :: নিউজ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।

ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)