তিন সহোদরসহ ৪জনের ফাঁসি

BagerhatPhoto-1(24.10.13)বাগেরহাট সদর উপজেলার চাঞ্চল্যকর সুশান্ত ওরফে কালাচাঁদ মল্লিক নামে এক কৃষককে হত্যার দায়ে তিন সহোদরসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালত।
বৃহস্পতিবার দুপুরে বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ এস এম সোলাইমান এ রায় ঘোষণা করেন।
ফাঁসির দণ্ডাদেশ প্রাপ্তরা হলেন- সদর উপজেলার বেমরতা ইউনিয়নের খাড়া সম্বল এলাকার বিপিন মল্লিকের তিন ছেলে সুবাস মল্লিক, সুশেন মল্লিক ও দীপঙ্কর মল্লিক এবং একই এলাকায় কালিপদ মণ্ডলের ছেলে দিলিন মণ্ডল।
এদের মধ্যে দিলীপ ও সুষেন পল্লী চিকিৎসক।
মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০০৪ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি ভোরে বাগেরহাট খাড়াসম্বল গ্রামের সুধীর মল্লিকের ছেলে সুশান্ত ওরফে কালাচাঁদ মল্লিক নিজের চিংড়ি ঘেরে গিয়ে নিখোঁজ হন। পরে ওই দিন দুপুরে ঘেরের পাশের সফেদ ফকিরের কাটাখাল থেকে তার লাশ উদ্ধার হয়।
এ ঘটনায় ওইদিন বিকেলে নিহতের বোন শোভা মল্লিক বাদী হয়ে বাগেরহাট সদর থানায় ওই ৪জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞতানামা আরো কয়েকজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় উল্লেখ করা হয় আসামিরা জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে তার ভাই সুশান্তকে গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাস রোধ করে হত্যার পর খালের পাশে ফেলে রাখে।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কাজী মাফিজুল ইসলাম একই বছরের ২ আগস্ট আদালতে ওই ৪জনসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।
আদালত ১৪ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্যগ্রহণ ও উভয়পক্ষের দীর্ঘ শুনানি শেষে ওই চারজনকে ফাঁসির আদেশ দেন এবং এজাহারভূক্ত বাকি দুই আসামি তপন মল্লিক ও অশোক কুমারকে খালাস দেন।
রায় ঘোষণার সময় আসামিরা সবাই আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
২৪ অক্টোবর ২০১৩ :: নিউজ  ডেস্ক,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এসআইএইচ-নিউজ এডিটর/বিআই
ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)