একদিকে সন্তানের লাশ, অন্যদিকে নির্বাচন !

পৃথিবীর সবচেয়ে ভারি বস্তু নাকি পিতার কাঁধে সন্তানের লাশ। কথাটা আজ বড় উপলব্ধি করছি।  টকবগে সন্তানের লাশ বুকে পাথর নিয়ে কাঁধে তুলতে হবে এবং মৃত শরীর পরম আদরে কবরে রাখতে হবে এ ব্যাথা আপনি একজন বাবা না হলে কখনো বুঝতে পারবেন না।

আবেগ আপ্লুত হয়ে এভাবেই বাগেরহাট ইনফোর প্রতিবেদককে কথাগুলি বলছিলেন মংলা চিলা ইউনিয়নের বকুলতলা গ্রামের বাসিন্দা আওয়ামীলীগ নেতা নজরুল ইসলাম হাওলাদার।

গত ২৪নভেম্বর  রাতে মংলায় চিলা ইউনিয়নের উপ-নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আ’লীগের দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর  মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সংঘর্ষে নজরুল ইসলাম হাওলাদারের ছেলে এলিট হাওলাদার (২৭)সহ ১৫জন আহত হয় বলে জানা যায়। এদের মধ্যে সকলের অবস্থা উন্নতি হলেও এলিট হাওলাদার (২৭) ঢাকার একটি হাসপাতালে বৃহস্পতিবার রাত ১১টার কিছু পরে মারা যান।

নিহতের পরিবারের দাবি, ২৪মার্চ রাতে নির্বাচনী প্রচারনা শেষে চিলার বৈদ্ধমারী বাজারে আ’লীগ সমর্থিত অপর চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. শফিকুল ইসলাম রাসেলের সমর্থকরা দেশীয় ধাতব অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায় ।

শুক্রবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত এলিটের লাশ মংলায় আসে নি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে লাশ আসতে দেরি হচ্ছে জানিয়ে নিহতের নিকট আত্মীয় এসএম সুমন  বলেন, কয়েক ঘন্টার মধ্যে লাশ মংলায় পৌছাবে।

BagerhatPhoto-01(28-02-2014)শুক্রবার বিকালে বাবা নজরুল ইসলাম আক্ষেপ করে বলেন, আগামীকাল (পহেলা মার্চ শনিবার) আমার ভোট,  আমি একজন প্রার্থী হয়ে সন্তানের লাশ কাঁধে তোলার অপেক্ষায় বসে আছি। কি বিচিত্র !

এলিট বিবাহিত জানিয়ে নজরুল ইসলাম আরো বলেন, তার (এলিটের) একমাত্র ৪ বছরের কণ্যা সন্তান তামান্না এখনো জানে না যে তার বাবা আর কোন দিন তাকে মা  বলে আদর করবে না। এখনো বাজার থেকে বাবা  জুতা কিনে আনবে সেই অপেক্ষা করছে সে। আর এলিটের মা সামছুন নাহার আর স্ত্রী  মানছুরা বারবার কেঁদে কেঁদে বুক ভাসিয়ে মূর্ছা যাচ্ছে। লাশ মংলায় আসার পর মামলা করা হবে বলেও জানান নজরুল ইসলাম ।

এ ব্যাপারে শুক্রবার সন্ধা ৬টায় মংলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুল ইসলাম বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে জানান, এলিটের মৃত্যুর খবর তার জানা নেই। তবে সংর্ঘষের পর আহতদের পক্ষ থেকে থানায় মামলা করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি শান্ত এবং নির্বাচন উপযোগী বলেও জানান ওসি।।

প্রসংঙ্গত, সম্প্রতি চিলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শেখ মোজাহারুল ইসলাম  মারা  গেলে এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদটি শূণ্যতা সৃষ্ঠি হয়।  পহেলা মার্চ এখানে উপ- নির্বাচন। এ নির্বাচনে বিএনপির ২জন এবং আওয়ামীলীগের ৪জন প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ :: এমএম ফিরোজ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এসআই হকনিউজরুম এডিটর/বিআই
    ** মংলায় আ.লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ
ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)