অভয়ারণ্যে মাছ শিকার: সুন্দরবনের ৪ বনরক্ষী বরখাস্ত

বুধবার (৩০ মার্চ) দুপুরে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) কামাল উদ্দিন আহম্মেদ এ খবর নিশ্চিত করেন।

এরা হলেন- সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের কটকা অভয়ারণ্য এলাকায় কর্মরত বনরক্ষী সবুর মোল্লা, নৌকা চালক মো. আনিসুর রহমান, নাসির উদ্দিন হাওলাদার ও মো. মোশাররফ হোসেন।

এই চারজনকে কর্মস্থল থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে কামাল জানান।

বাগেরহাট ইনফো টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি বলেন, ২৩ মার্চ ইউনেস্কোর তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল সুন্দরবন পরিদর্শনে আসেন। সে সময় কটকা অভয়ারণ্য এলাকায় জেলেদের মাছ শিকারের বিষয়টি গোচরে এলে তারা বিস্ময় প্রকাশ করেন এবং সঙ্গে থাকা বন কর্মকর্তাদের কাছে এ নিয়ে আপত্তি তোলেন।

প্রতিনিধি দলটি ২৩ মার্চ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত বাংলাদেশ অংশে সুন্দরবনের বিশ্ব ঐতিহ্য (ওয়াল্ড হেরিটেজ) স্থানগুলো পরিদর্শন করেন।

“ইউনেস্কো সুন্দরবনের যেসব এলাকা অভয়ারণ্য হিসেবে ঘোষণা করেছে সেসব স্থানে মাছ শিকার নিষিদ্ধ ঘোষণা করে বন বিভাগ। কিন্তু ওই বনকর্মীরা তা জেনেও জেলেদের অবৈধভাবে মাছ শিকার করার সুযোগ করে দিয়েছে।”

১৯৯৭ সালে সুন্দরবন ইউনেস্কো ঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় স্থান পায়। ৯৮তম বিশ্ব ঐতিহ্য এটি। সুন্দরবনে বর্তমানে প্রায় একশ বেঙ্গল টাইগার ও ত্রিশ হাজারের মতো চিত্রা হরিণ রয়েছে।

এছাড়া মায়া হরিণ, বন্য শূকর, বানর, গুইসাপ, ভোঁদর, ডলফিন, নোনাপানির কুমির, কিং কোবরা, অজগর ইত্যাদি নানান বন্যপ্রাণীর বাস সুন্দরবনে।

৩০ মার্চ :: স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আইএইচ/এনআরএ/বিআই
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)