নীলফামারীর শিশু অপহরণ ও ধর্ষণের মামলার আসামি আটক হল বাগেরহাটে

নীলফামারীর এক শিশু অপহরণ ও ধর্ষণের মামলার আসামি মুকুল ওরফে মোকছেদুলকে (১৮) বাগেরহাট থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বাগেরহাটে আত্মগোপণ করে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করছিলো মুকুল। বৃহস্পতিবার সকালে সদর থানা পুলিশের সহযোগিতায় নীলফামারী সদর থানা পুলিশ একটি দল তাকে গ্রেপ্তার করে।

বাগেরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, নীলফামারী থানার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের একটি মামলার মুকুল নামের এক আসামিকে গ্রেপ্তারের জন্য নীলফামারী সদর থানা  পুলিশের একটি দল বৃহস্পতিবার ভোরে বাগেরহাটে আসেন। বাগেরহাট পুলিশের সহযোগিতায় তারা বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের খারদ্বার এলাকার একটি নির্মাণাধীন বাড়ি থেকে মুকুল নামে ওই আসামিকে গ্রেপ্তার করেন। মুকুল সেখানে নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করছিলো। বিকালে গ্রেপ্তারকৃত মুকুলকে নিয়ে তারা নীলফামারীর উদ্দেশে রওনা হয়ে গেছে।

নীলফামারী সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ও এই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম জানান, গত ১১ জানুয়ারি মুকুল ও আবু সাঈদ নামে দুই যুবক একটি বিয়ে বাড়ি থেকে  ১২ বছরের এক শিশুকে অপহরণ ও ধর্ষণ করে। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে। মুকুল ও আবু সাঈদ ওই ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করা মামলার আসামি। ঘটনার পর থেকে তারা পলাতক ছিলো।

তিনা বলেন, মুঠোফোনের সূত্র ধরে আমরা বাগেরহাটে মুকুলের অবস্থান বিষয়ে নিশ্চিত হই এবং তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই।

ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)