শিশুরা কথা শুনতে পায় মাতৃগর্ভ থেকেই

জন্মের প্রায় তিন মাস আগে থেকই শিশু মানুষের কথা শুনতে পায় এবং তা বুঝতেও পারে। আর এভাবে মাতৃগর্ভেই শিশুর বাকশক্তির বিকাশ ঘটে বলে ধারণা করছেন গবেষকরা।hair

মাতৃগর্ভে থাকাকালে জন্মের প্রায় তিন মাস আগে থেকেই শিশুরা মানুষের কথা শুনতে পায় এবং তা বুঝতেও পারে বলে জানিয়েছেন ফ্রান্সের একদল গবেষক।

তারা জানান, সময়ের আগে জন্ম নেয়া ১২ টি নবজাতকের মস্তিষ্ক পরীক্ষায় এর এমন প্রমাণ পাওয়া গেছে। গবেষণায় দেখা গেছে, মাতৃগর্ভে ২৮ সপ্তাহ পূর্ণ হওয়ার পরই শিশুরা ‘গা’ কিংবা ‘বা’ এর মতো ধ্বনি আলাদা করে বুঝতে পারে এমনকি নারী- পুরুষের কণ্ঠও আলাদা করে চিনতে পারে তারা।

নতুন এ গবেষণার ফলে, বাবা-মা এর কণ্ঠস্বর শুনে গর্ভাবস্থায়ই শিশুরা ভাষার দক্ষতা অর্জন করে বলে যে ধারণা রয়েছে তাই-ই আরো দৃঢ় হয়েছে । শিশুরা গর্ভে থাকাকালে কোলাহল শুনতে পায় এ বিষয়টি আগেও গবেষণা থেকে জেনেছেন বিশেষজ্ঞরা। শিশুর কান এবং শ্রবণেন্দ্রিয় গঠিত হয়ে যায় প্রায় ২৩ সপ্তাহ সময়েই।কিন্তু তারপরও মানবশিশু জন্মগতভাবেই বাকশক্তি নিয়ে জন্মায় নাকি জন্মের পর শব্দ শুনে বাকশক্তির বিকাশ ঘটে তা নিয়ে এখনো বিতর্ক রয়ে গেছে।

‘প্রসেডিংস অব দ্য ন্যাশনাল একাডেমি অব সায়েন্সেস’ (পিএনএএস) এ ফ্রান্সের গবেষকদের নতুন গবেষণা প্রতিবেদনে শিশুর ভাষা দক্ষতায় পারিপার্শ্বিক পরিবেশকে সন্দেহাতীতভাবে গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে গবেষণার প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে গবেষকরা ধারণা করছেন, শিশুর এ দক্ষতা জন্মগত।

সূত্র: ইন্টারনেট(BBC)

Inzamamul HaqueWriter: Inzamamul Haque (164 Posts)