পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলির পর ৪ জেএমবি আটক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

bagerhat-pic-jmb03-11-2016বাগেরহাটে পুলিশের সঙ্গে সন্দেহভাজন জেএমবি সদস্যদের গোলাগুলির পর চারজনকে আটক করা হয়েছে।

শহরের দড়াটানা ব্রিজ এলাকায় বুধবার দিনগত গভীর রাতে গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় জানান।

আটককৃতরা হলো- সাতক্ষীরা জেলা সদরের গড়েরকান্দা গ্রামের জুম্মান আলী সরদারের ছেলে মো. মাকসুদুর রহমান ওরফে তোতা (২৪), একই জেলার ইটগাছা গ্রামের আব্দুল করিমের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩৬), কদমতলা বাজার এলাকার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মোরশেদ আলম (২০) ও পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের আশরাফুল আলী ফরাজীর ছেলে জহিরুল ইসলাম (২২)।

পুলিশের ভাষ্য, আটক এই চারজন নিষিদ্ধ জঙ্গি সঙ্গঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সদস্য।

পুলিশ সুপার বলেন, জেএমবি সদস্যরা নাশকতা সৃষ্টির জন্য শহরের দড়াটানা ব্রিজ এলাকায় জড়ো হয়েছে খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালানো হয়।

“এ সময় তারা পুলিশ দেখে হাতবোমা ছোড়ে এবং গুলি করে। পুলিশও পাল্টা গুলি করে। এ ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।”

আহত জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এএসআই মো. মোস্তাফিজুর রহমান ও কনস্টেবল নাজমুল হোসেনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

গোলাগুলির পর পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড গুলি, চারটি হাতবোমা ও একটি ল্যাপটপসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে বলে জানান তিনি।

পরে পুলিশ ওই চার জেএমবি সদস্যকে আটক করতে সক্ষম হয়। এসময় তাদের সঙ্গি অজ্ঞাত নামা আরও ২/৩ জন পালিয়ে গেছে।

এঘটনায় আটকৃতদের বিরুদ্ধে সরকারি কাছে বাঁধা, অস্ত্র আইন, বিস্ফোরক দ্রব্য আইন এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে বাগেরহাট মডেল থানায় পৃথক চারটি মামালা হয়েছে।

এর আগে গত ২৪ অক্টোবর ভোর রাতে বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার মঘিয়া ইউনিয়নের খলিসাখালী গ্রামের সাফায়াত শেখের বাগান বাড়ি থেকে চার জেএমবি সদস‌্যকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এএইচ/এসআই/বিআই/০২ নভেম্বর, ২০১৬

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1300 Posts)