শান্ত নির্বাচন, বড় অভিযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাটে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে শেষ হয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোরেলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকলেও কেন্দ্রগুলোতে ছিলোনা তেমন ভোটার উপস্থিতি।

ভাইস চেয়ারম্যান ছাবুল আখতারের মৃত্যুতে ১৩ মাস আগে পদটি শূন্য হয়। ওই পদে আওয়ামী লীগ থেকে প্রয়াত ভাইস চেয়ারম্যান ছাবুল আখতারের স্ত্রী ফাহিমা খানম। বিএনপি থেকে মো. বদিউজ্জামান খান ও জাতীয় পার্টি থেকে মো. আখতারুজ্জামান দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নেন।

সোমবার (৬ মার্চ) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলে নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। তবে দুপুর না গড়াতেই নৌকা প্রতিকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে এনে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন জাতীয় পার্টি (এরশাদ) প্রার্থী।

একই অভিযোয়ে ভোট বাতিল এবং পূন:নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি দলীয় প্রার্থী।

উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা মিলে মোট ১০৯টি কেন্দ্রে চলে ভোটগ্রহণ।

সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, অধিকাংশ ভোট কেন্দ্রে বিএনপি ও জাপার প্রার্থীর পক্ষে কোন পোলিং এজেন্ট নেই। এক মাত্র আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের পক্ষেই এজেন্ট ছিলো। কেন্দ্রে কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকলেও ছিলনা তেমন কোন ভোটার উপস্থিতি। নির্বাচন নিয়ে সাধারণ ভোটারদের মাঝে ছিলোনা তোমন আগ্রহও।

মোরেলগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও উপনির্বাচনের সহকারী রিটার্নি অফিসার বাদল চন্দ্র অধিকারী বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, সবগুলো কেন্দ্র শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বর্তমানে ভোট গণনা চলছে। নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৩৪.৬৯ ভাগ।

নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা বিএনপি প্রাথী মো. বদিউজ্জামান খান বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, সকাল থেকেই বিভিন্ন কেন্দ্রে আমার এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। দুপুর ২টা পর্যন্ত কেন্দ্রগুলোতে পাঁচভাগ ভোটও পড়েনি। দুপুরের পর সব কেন্দ্র থেকেই আমার এজেন্টদের বের করে দিয়ে নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা জাল ভোট দিতে শুরু করে।

অনিয়মের অভিযোগে দুপুর দুইটার দিকে ভোট বর্জনের ঘোষণা করেন জাপা প্রার্থী মো. আখতারুজ্জামান। নিজ বাড়িতে ডাকা সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, সুষ্ঠ নির্বাচন হবে এমন প্রত্যাশায় জাতীয় পার্টি থেকে লাঙ্গল প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলাম। তবে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পক্ষে জাল ভোট প্রদানসহ নানা অনিয়োম ও কারচুপির কারনে নির্বাচন বর্জন করছি।

আওয়ামী লীগ প্রার্থী ফাহিমা খানম বলেন, সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয়েছে। ভোটাররা তাদের মত প্রকাশ করেছে। আশাকরি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হব।

এদিকে ভোট চলাকালে জাল ভোট দেওয়ার দায়ে এক যুবককে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার নিসানবাড়ীয়া ইউনিয়নের হামেজিয়া দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্র থেকে জাল ভোট দেওয়ার সময় জাহিদুল ইসলাম (১৮) নামে এক যুবককে আটক করা হয়।

বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী হাকিম নাজিমউদ্দীন জানান, আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনে জাল ভোট দেওয়ার সময় ওই কেন্দ্র থেকে তাঁকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া ভোট কেন্দ্রে মুঠোফোন ব্যবহারের অভিযোগে জাপা (জাতীয় পার্টি) প্রার্থীসহ আওয়ামী লীগ কর্মীদের ৬টি ফোনসেট জব্দ করা হয়।

এইচ/এসআই/বিআই/০৬ মার্চ, ২০১৭
** জাল ভোট দিয়ে কারাগারে, জাপা’র ভোট বর্জন
** উপনির্বাচন: শান্ত পরিবেশ, ভোটার উপস্থিতি কম
** ভাইস চেয়ারম্যান পদের উপনির্বাচন সোমবার

 

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)