সেই বিয়ে হলো পুলিশ প্রহরায়

অলীপ ঘটক | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বৃহস্পতিবার হামলার ঘটনায় পণ্ড হওয়া চিতলমারীর চিংগুড়ি গ্রামের সেই বিয়ের আয়োজনটি আজ পুলিশ প্রহরায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পূর্ববিরোধের জেরে বৃহস্পতিবার (০৯ মার্চ) বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার কলাতলা ইউনিয়নের চিংগুড়ি গ্রামের একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে হামলার ঘটনা ঘটেছিল। সে সময় হামলাকারীরা বসত ঘর, বিয়ের প্যান্ডেল ভাংচুর ও অনুষ্ঠানের অতিথিদের আপ্যায়নের জন্য রান্না করা খাবার ফেলে দেয়।

এতে আহত হন বেশ কয়েকজন, পণ্ড হয়ে যায় ওই বিয়ের অনুষ্ঠান।

এর প্রেক্ষিতে শুক্রবার (১০ মার্চ) দুপুরে চিংগুড়ি গ্রামের শেখ ইদ্রিস আলীর বাড়িতে পুলিশ প্রহরায় তার মেয়ের সেই বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

কনের পরিবার সূত্রে জানা যায়, দুই পরিবারের সম্মতিতে বেশ কিছুদিন আগে ইদ্রিস আলীর মেয়ে সুরছিন খাতুনের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী মোল্লাহাট উপজেলার নতুন ঘোষগাঁতি গ্রামের এনায়েত সরকারের ছেলে জিয়া সরকারের বিয়ের দিন তারিখ ঠিক হয়। সেই অনুয়ায়ী বৃহস্পতিবার মেয়ের বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কিন্তু আকষ্মিকভাবে সেই অনুষ্ঠানে হামলার ঘটনা ঘটলে বিয়ে পণ্ড হয়ে যায়।

ইদ্রিস আলীর অভিযোগ, বিয়ের দিনে স্থানীয় ইউপি সদস্য সোহাগ শেখ তার লোকজন নিয়ে আমার বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালায়। এই খবর জানতে পেরে বরপক্ষ আমার বাড়িতে আসেনি। যার কারণে সে দিন বিয়ের অনুষ্ঠান হয়নি।

‘শুক্রবার পুলিশ নিরাপত্তা দেয়ায় শান্তিপূর্ণভাবে বিয়ের অনুষ্ঠান শেষ হয়েছে।’

পুলিশী প্রহরায় বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজনের বিষয়ে জানতে চাইলে চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম বলেন, বৃহষ্পতিবার হামলার কারণে ইদ্রিস আলীর মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠান ভেস্তে গেছিল। এর পর সেখানে পুলিশ মোতায়ন করা হয়। শুক্রবার বিয়ের অনুষ্ঠানে যাতে নতুন করে কোন সংঘাত না হয় সেজন্য আমরা ওই এলাকায় বাড়তি টহল জোরদার করি। শান্তিপূর্ণভাবে ইদ্রিস আলীর মেয়ের বিয়ে শেষ হয়েছে।

ইদ্রিস আলীর সঙ্গে স্থানীয় ইউপির সদস্য সোহাগের পরিবারের পূর্ববিরোধের জেরে ওই হামলার ঘটনা ঘটেছিল। হামলাকারীরা আত্মগোপণে যাওয়ায় তাদের এখনো গ্রেপ্তার করা যায়নি। এঘটনায় এখনও ওই পরিবার থানায় কোন মামলা করেননি।

এইচ/এসআই/বিআই/১০ মার্চ, ২০১৭
** চিতলমারীতে বিয়ে বাড়িতে হামলা

অলীপ ঘটকWriter: অলীপ ঘটক (34 Posts)