বাগেরহাটে চাঁদাবাজি মামলায় আটক ৪

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাটে চাঁদাবাজি ও মারধরের মামলায় মামা-ভাগ্নেসহ চার জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাতে তাদেরকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে দুই জনকে এলাকাবাসী ধরে পিটুনি দেওয়ার পর তাদের কাছে সোর্পদ করে বলে জানিয়েছে পুলিশ ।

আটককৃতরা হলেন- বাগেরহাট সদর উপজেলার বড়শিংড়া  গ্রামের আব্দুল মান্নান হাওলাদারের দুই ছেলে কামরুজ্জামান ওরফে মুকুল হাওলাদার (৩৬) ও নুরুজ্জামান ওরফে লিটন হাওলাদার (৩০) এবং তাদের ভাগ্নে সদর উপজেলার ফুলতলা গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনের দুই ছেলে আব্দুল্লাহ আল-মাসুদ (৩০) এবং শেখ শাওন (২০)।

পুলিশের ভাষ্য, এদের মধ্যে মুকুল ও লিটনকে স্থানীয় লোকজন ধরে পিটুনি দিয়ে তাদের কাছে সোপর্দ করে।

এরআগে বৃহস্পতিবার বিকেলে বড়শিংড়া গ্রামে একটি সরকারি রাস্তার জায়গা দখল নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় বাড়িঘরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে বলে জানায় স্থানীয়রা।

ওই ঘটনায় রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্য অহিদুল ইসলাম ও কামরুজ্জামান মুকুল বাগেরহাট মডেল থানায় অভিযোগ দিতে আসে। পরে সেখানে ওই দুই পক্ষের সমর্থকরা বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে বলে জানা গেছে। 

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহাতাব উদ্দিন বলেন, সদর উপজেলার বড়সিংগা গ্রামের মো. আকবর আলী তার দায়েরকৃত মামলায় উল্লেখ করেছেন, আসামিরা দীর্ঘদিন ধরে তার কাছে চাঁদাদাবি করে আসছিল।

বৃহস্পতিবার বিকালে আসামিরা তাদের বাড়ির কাছে পেয়ে তার উপর হামলা চালায় এবং মারধর করে কাছে থাকা ৫৪ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এসময় স্থানীয় লোকজন ধাওয়া করে দুই ভাইকে ধরে পিটুনি দেয় এবং পুলিশে সোর্পদ করে। মামলা দায়েরের আরও দুই আসামিকে আটক করা হয়েছে।

ওই মামলার ছয় জনকে আসামি করা হয়েছে। অপর দুইজন পলাতক রয়েছে বলে ওসি জানান।

এদিকে, অপর একটি মামলায় ইউপি সদস্য অহিদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

 

এইচ//এসআই/বিআই/০৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1251 Posts)