স্কুলছাত্রী টিনা হত্যা মামলায় ৬জনের যাবজ্জীবন

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার এক কিশোরীকে অপহরণের পর গণর্ধষণ ও লাশ গুমের অপরাধে ৬ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

টিনা হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ডা প্রাপ্ত দুই আমামি। ছবি: বাগেরহাট ইনফো ডটকম।

টিনা হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ডা প্রাপ্ত দুই আমামি। ছবি: বাগেরহাট ইনফো ডটকম।

বুধবার দুপুরে দুপুর ২টায় জরাকীর্ণ বাগেরহাটের নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক মো. আবুল বাশার মুন্সি এই রায় দেন। এসময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন চার্জশিটভুক্ত আসামি আট আসামির মধ্যে আটক কৃত দু’জন ।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন-মোড়েলগঞ্জ উপজেলার খালকুলিয়া গ্রামের আব্দুস সালাম হাওলাদারের ছেলে মো. রাসেল হাওলাদার, মোক্তার হাওলাদারের ছেলে লান্টু হাওলাদার ও বাদল ওরফে ওবায়দুর হাওলাদার, সাত্তার হাওলাদারের ছেলে জুয়েল হাওলাদার, রুস্তম হাওলাদারের ছেলে মামুন হাওলাদার এবং একই উপজেলার কলাবাড়িয়া গ্রামের উকিল উদ্দিন হাওলাদারের ছেলে রাজ্জাক হাওলাদার।এদের প্রত্যেকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা আনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত।

একই সঙ্গে এই মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি পলাশ খাঁন ও মনির শেখেকে খালাস দিয়েছেন আদালত।মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৪ সালের ৪ ফেব্রেুয়ারী বাগেরহাট জেলার মোড়েলগঞ্জ উপজেলার খালকুলিয়া গ্রামের মো. সামসুর রহমান মাস্টারের স্কুল পড়ুয়া কন্যা মাসুমা খানম টীনা প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিতে গেলে রাসেলের নেতৃত্বে ৭/৮ জন লোক তাকে অপহরণ করে নেয়। এই ঘটনায় পরের দিন সকালে টীনার পিতা বাদী হয়ে মোড়েলগঞ্জ থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করে। এই মামলার একদিন পর স্থানীয় স্থানীয় একটি ড়োবা থেকে টিনার লাশ উদ্ধরা করে পুলিশ।পরে মামলাটি হত্যা মামলায় রুপান্তরিত হয়।

আদালত এ মামলার ১৭ জনের স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এই রায় ঘোষণা দেন।

১০ জুলাই ২০১৩ :: ইনজামামুল হক, নিউজ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)