হরতালে সহিংসতার অভিযোগে বাগেরহাটে জামায়াত-শিবিরের শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে পৃথক মামলা

বুধবারের হরতালে বাগেরহাটে গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় জামায়াত-ছাত্রশিবিরের ১০৪ নেতাকর্মীকে আসামী করে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বাস মালিক সমিতির পক্ষে জাহাঙ্গীর হোসেন বাদী হয়ে বাগেরহাট সদরের সিএন্ডবি বাজারে বাস ভাঙচুরের ঘটনায় মাসুম বিল্লাকে প্রধান আসামি দিয়ে ছয়জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা করেন। এছাড়া যাত্রাপুর বাজারে টেম্পু ভাঙচুরের ঘটনায় চালক ছোট শেখ বাদী হয়ে সদর থানা জামায়াতের আমির ডা. আব্দুল লতিফকে প্রধান আসামি দিয়ে ২৭ জনের নাম উল্লেখ করে অপর একটি মামলা দায়ের করেছে।

বুধবার রাতে বাগেরহাট মডেল থানায় এ মামলা দুটি দায়ের করা হয়। মামলায় আসামি করা হয়েছে অজ্ঞাত পরিচয়ের জামায়াত-শিবিরের আরো শতাধিক নেতাকর্মীকে।

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল কবির চৌধুরী বাগেরহাট ইনফোকে জানান, বুধাবারের হরতালের সময় গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। জাহাঙ্গীর হোসেনের মামলায় বাগেরহাট সদর থানার রাখালগাছি এলাকার ওতার উদ্দিন শেখের ছেলে শামিম হাসান ও একই এলাকার খলিলুর রহমানের ছেলে ওয়াবায়দুর রহমানকে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, আটকদের বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে এছাড়া পুলিশি অভিযান চলছে অন্য আসামিদের ধরতে।

১৮ জুলাই ২০১৩ :: উপজেলা নিউজ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)