বাগেহাটে এস.এস.সি তে কৃতি শিক্ষার্থিদের সংবর্ধনা

সুমন বিশ্বাস, বাগেরহাট।

আগামি ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৩ শনিবার বিগত এস.এস.সি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত বাগেরহাট জেলার প্রায় ৬০০ কৃতি শিক্ষার্থিদের সংবর্ধনা দিতে যাচ্ছে প্রথম-আলো বন্ধুসভা, বাগেরহাট।

দেশের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক পত্রিকা প্রথম-আলো এবং একমাত্র সরকারি মোবাইল সেবাদাতা কোম্পানি টেলিটক এর সহযোগিতায় সারাদেশের ৬৪ জেলার ন্যায় বাগেরহাটেও এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। জেলা পরিষদ মিলনায়তনে ঐদিন সকাল সাড়ে নয়টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে এ কার্যক্রম চলবে। উক্ত অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থিদের সাথে তাদের অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া প্রতিটি মাধ্যমিক স্কুলের আমন্ত্রিত শিক্ষকবৃন্দও উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করা যাচ্ছে। একই মঞ্চে জেলার ফলাফলের ভিত্তিতে শ্রেষ্ঠ তিনটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়কেও পুরস্কৃত করা হবে।

উক্ত আয়োজনের জন্য বন্ধুসভার সর্বস্তরের সদস্যদের কর্মতৎপরতা চোখে পড়ার মত। সংগঠনটির সাংগঠনিক সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন শাওন জানান গত দুই সপ্তাহ ধরে তাদের এ অনুষ্ঠানটির জন্য ব্যস্ত দিন যাচ্ছে। সর্বপ্রথম প্রথম-আলোর ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের দিন নির্ধারন করা থেকেই এ কর্মতৎপরতা শুরু হয় তাদের।

জিপিএ ৫ প্রাপ্ত সকল শিক্ষার্থিদের প্রত্যেকের মোবাইল নম্বরে বার্তা পাঠিয়ে আগাম জানিয়ে দেওয়া হয় অনুষ্ঠানের দিনক্ষন এবং স্থান। একই বার্তায় তাদের রেজিস্ট্রেশনের জন্যও আহবান করা হয় বলে জানান শাওন। আবার প্রতিটি বিদ্যালয়ে আলাদাভাবে চিঠি পাঠিয়ে বিস্তারিত দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। রেজিস্ট্রেশন ফর্ম পাওয়া যাচ্ছে প্রতিদিনের প্রথম আলো পত্রিকায়। ইতোমধ্যে  সিংহভাগ শিক্ষার্থি রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেছেন। বাকিরা অনুষ্ঠনের দিন ঐ স্থানেই তাদের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে পারবেন। তাদের রেজিস্ট্রেশন ফর্ম এবং এস.এস.সি পরীক্ষার প্রদত্ত মার্কশীটের ভিত্তিতে সনদপত্র লেখার কাজ চলছে পুরোদমে। সম্পূর্ন অনুষ্ঠান নিয়ন্ত্রনের দায়িত্বে থাকবে বাগেরহাট বন্ধুসভার সদস্যরা।

প্রতিবছরের তুলনায় এবারের আয়োজনে বিশেষ আকর্ষন হিসাবে থাকছে টেলিটকের সাশ্রয়ী মূল্যে ব্যবহারযোগ্য বিশেষ সিরিজের সিম। তবে এ সিম আপাতত বাজারে ছাড়ার ইচ্ছা নেই বলে টেলিটক জানিয়েছেন। সিমগুলো আপাতত শিক্ষার্থিদের অভিভাবকের নামে রেজিস্ট্রেশন করা হবে।আয়োজনে ফুড পার্টনার হিসাবে থাকবে প্রাণ।

অনুষ্ঠানে বাগেরহাটের গুনীজনেরা উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানকে অলংকৃত করবেন বলে জানান বাগেরহাট বন্ধুসভার সহ-সাধারন সম্পাদক ইনজামামুল হক। তিনি আরও জানান ঐদিনটির জন্য অধির আগ্রহে অপেক্ষা করছেন তিনি। কেননা, মেধাবীদের মেধাকে ত্বরান্বিত করতে এ ধরনের অনুষ্ঠানের কোন বিকল্প নেই। দেশের কর্মতৎপর সব সংগঠনকে এ ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য আহবানও জানান ইনজামামুল।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি কৃতি শিক্ষার্থিরা নাচ, গান, কবিতা আবৃত্তি, অভিনয় ইত্যাদি পরিবেশন করবেন। উল্লেখ্য এই ইভেন্টে অংশগ্রহনকারী সকল শিক্ষার্থিদের বিনা প্রতিযোগিতায় উপহার হিসাবে বই দিবে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ভ্রাম্যমান লাইব্রেরি, বাগেরহাট। লাইব্রেরিয়ান আতিকুজ্জামান সুমন বলেন, “এই অনুষ্ঠনে অংশগ্রহনকারি সকল শিক্ষার্থিরাই অত্যন্ত মেধাবি। তাদের ভিতর থেকে যারা অন্য সাংস্কৃতিক কার্যক্রমে অংশ নেয় তারা যে আরও মেধাবি তা সন্দেহাতিত। আর তাই তাদেরকে বই উপহার দিতে আমরা উৎসুক”।

বাগেরহাটের জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থিদের মধ্যেও এ অনুষ্ঠানের জন্য উচ্ছ্বাস লেগে আছে। যারা ইতোমধ্যে পড়ালেখার কারনে জেলার বাইরে গিয়েছেন তারাও ঐদিন সংবর্ধিত হতে অনুষ্ঠানে আসার নিশ্চয়তা দিয়েছেন। আর সদরের বাইরের বিদ্যালয়গুলো থেকে শিক্ষার্থিদের আসার ব্যাপার সামান্য কষ্টের কথা ভাবা হলেও তাদের উৎসাহ ও আগ্রহে সে দুঃশ্চিন্তা বহুলাংশে ঘুচে গেছে।

প্রথম-আলোর বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি জনাব আহাদ হায়দার বন্ধুসভাকে তাদের পূর্ণ উদ্যমে কাজ করে অনুষ্ঠানটিকে সফল করার আহবান জানিয়ে তার সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন। প্রথম-আলো, বন্ধুসভা এবং টেলিটকের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা সংবর্ধনায় উপস্থিত থাকবেন। বর্তমানে দেশের অন্যান্য জেলাগুলোতে পর্যায়ক্রমে এ সংবর্ধনা চলছে।

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৩ :: চাইল্ড ডেস্ক, বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।

Writer: আমাদের কথা (9 Posts)

প্রতিটি প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের মত শিশুদেরও আছে আলাদা দৃষ্টিভঙ্গি, কল্পনার আর ভাবনার জগত। তাদেরও বলবার আছে। তাদেরও কিছু ভাবনা আছে এই সমাজ, দেশ কিম্বা বিশ্বকে নিয়ে। তাই শিশুদের নিয়ে শিশুদের কথা বলতে আমাদের আয়োজন ‘আমাদের কথা’। এখন থেকে তোমাদের সাংবাদিকতা; তোমাদের লেখা গল্প, কবিতা, অধিকার আদায়ে বিষয় তুলে ধরবে ‘আমাদের কথা’।