সুন্দরবনে র‌্যাব-বনদস্যু বন্দুক যুদ্ধে বাহিনী প্রধানসহ নিহত ২

সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জে র‌্যাব-৮ এর সাথে বনদস্যু মূর্তজা বাহিনীর বন্দুক যুদ্ধে বাহিনী প্রধান মূর্তজাসহ ২ বনদুস্য নিহত হয়েছে।
BagerhatNews10.07.13
বুধবার সকাল ৭ টা ৫০মিনিট এর দিকে চাঁদপাই রেঞ্জের শ্যালা নদীর পূর্বপাড়ে এই বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন- মূর্তজা বাহিনীর প্রধান মূর্তজা ও তার সেকেন্ড ইন কমান্ড মোশারেফ হোসেন।
এ সময়ে র‌্যাব সুন্দরবনের গহীনারন্যে অভিযান চালিয়ে বনদুস্যদের ১৫ টি দেশী-বিদেশী আগ্নেয়াস্ত্র, ৫টি ধারালো অস্ত্র, একটি মোডিফাইড মোবাইল এ্যান্টেনা ও ডাকাতি লব্ধ ১৯ হাজার টাকা উদ্ধার হয়েছে।
র‌্যাব-৮ এর উপ অধিনায়ক মেজর মো. আনোয়ারুল করির বাগেরহাট ইনফোকে জানান, বুধবার সকালে সুন্দরবনের শেলা নদীতে র‌্যাব-৮ এর নিয়মিত টহলকালে সেখানে নদীর পূর্ব পাড়ে পায়ের ছাপ দেখতে র‌্যাব সদস্যরা বনের ভিতর প্রবেশ করে।
এ সময় বনদস্যু মর্তুজা বাহিনী র‌্যাব সদস্যদের দেখামাত্র গুলি ছুড়লে র‌্যাবও আত্মরক্ষায় পাল্টা গুলি চালায়। সকাল ৭টা ৫০মিনিটে শুরু হওয়া উভয়ের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধ চলে ৮টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত। একপর্যায়ে বনদস্যুরা সুন্দরবনে গহীনে পালিয়ে যায়।
এ সময় উভয়ের মধ্যে প্রায় ৩শ ৩৫ রাউন্ড গুলিবিনিময় হয়েছে বলে জানায় তিনি।
আনোয়ারুল জানান, পরে স্থানীয় জেলেদের সহায়তায় বনের ভিতরে তাল্লাশি চালিয়ে- ৭টি এলজি, ২টি দু’নালা বন্দুক, ২টি এক নালা বন্দুক, ১টি ওয়ান শুটার গান, ২টি পয়েন্ট থ্রী নট থ্রী রাইফেল, একটি পয়েন্ট টু টু রোর রাইফেল, ১১রাউন্ড তাজা গুলি, ২২ রাউন্ড পয়েন্ট টু টু রোর রাইফেলের ফাঁকা গুলি সহ দস্যুদের ব্যবহৃত বেশ কিছু মালামাল এবং নিহত দুই বনদস্যুর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে।
পরে স্থানীয় জেলেরা লাশ দুটিকে মূর্তজা বাহিনীর প্রধান মূর্তজা ও মোশারেফ বলে সনাক্ত করে। তাদের বাড়ী মংলার জয়মনিরঘোল এলাকায়।
উদ্ধারকৃত মালামাল এবং নিহতদের লাশ মংলা থানায় হস্থান্তর করা হবে বলে জানান র‌্যাব-৮ এর ওই কর্মকর্তা।
৩০ অক্টোবর ২০১৩ :: এমএম ফিরোজ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট ,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এসআই হক-নিউজ এডিটর/বিআই
ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)