নব্য জেএমবির টার্গেট আ.লীগ ও পুলিশ: ডিআইজি

দুদিন আগে বাগেরহাটে গ্রেপ্তার হওয়া সন্দেহভাজন চার নব্য জেএমবি সদস্যকে জিজ্ঞাসাবাদের পর বুধবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে বাগেরহাট পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা জানান।

তিনি বলেন, আটক চার ‘নব্য জেএমবি’ সদস্য পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে। বাংলা ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করা এক জেএমবি নেতা এই চার জঙ্গির বড় ভাই হিসেবে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন।

পুলিশ এই নেতা সম্পর্কে অনেক তথ্য পেয়েছে দাবি করে মনিরুজ্জামান বলেন, নব্য জেএমবির এই গ্রুপটি বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা, পিরোজপুর ও যশোর জেলার একাংশের আওয়ামী লীগ নেতা ও পুলিশ সদস্যদের টার্গেট করে বড় ধরনের নাশকতার পরিকল্পনা করেছে।

পুলিশ এসব নাশকতার পরিকল্পনাকারীদের ধরতে তৎপর রয়েছে বলে তিনি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি হাবিবুর রহমান, বাগেরহাট পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস, সহকারী পুলিশ সুপার জিয়াউল ইসলামসহ পুলিশের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সোমবার গভীর রাতে বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার খলিশাখালী গ্রাম থেকে পুলিশ সন্দেহভাজন নব্য জেএমবির চার সদস্য আকাশ, হাবিবুল্লাহ, মিজান ও কবীরুলকেকে আটক করে।

মঙ্গলবার বিকালে তারা বাগেরহাটের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. আসিফ আকরামের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তাররা অপর চার-পাঁচ সহযোগীসহ ওই রাতে একটি গোপন বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন। অভিযানকালে অন্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

পুলিশের তথ্যমতে- আকাশ মোল্লা ওরফে বাবু (১৯) কচুয়া ডিগ্রি কলেজ থেকে এ বছর উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেছেন। প্রায় দুই বছর আগে নিজ বাড়িতে বোমা বিস্ফোরণে তিনি আহত হয়েছিলেন। পারিবারিকভাবে তিনি আহলে হাদিস মতাদর্শী।

হাবিবুল্লাহ শেখ (১৮) পিরোজপুরের কেয়ামুদ্দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে আগামী বছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশ নেবেন। মিজানুর রহমান হাওলাদার (২৬) পিরোজপুরের দুর্গাপুর আলিয়া মাদ্রাসা থেকে এ বছর দাখিল পাশ করেছেন। কবিরুল ফরাজী (২৯) পেশায় আইনজীবীর সহকারী।

এজি-এসআই/বিআই/২৬ অক্টোবর, ২০১৬
** জেএমবি আস্তানায় অভিযানে অস্ত্র-বোমাসহ ৪ ‘জঙ্গি’ আটক
** 
আটকদের আদালতে জেএমবি সম্পৃক্ততা স্বীকার: পুলিশ

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)