লোনা জলে সাদা থানশাড়ী

Shagor
সমুদ্রের গর্জন তার বুকে বার বার বিধঁছে বিষাক্ত তীর হয়ে,
তবু সে দাঁড়িয়ে রইল তীরের সামনে ।
বাতাসে উড়তে থাকা তার চুল আটকে ধরছে চকচকে বালি ।
সাদা ফেনা স্রোত ভিজিয়ে দিল তার সাদা থানশাড়ী,
চোখের লোনা জল চুইয়ে চুইয়ে পড়ছে, সাগরের লোনা জলে ।
একের পর এক স্রোত তার পায়ের নিচ থেকে সরিয়ে নিচ্ছে বালিকনা !
তবু সে ঠায় দাড়িয়ে রইল ।
অতল গহবর থেকে উত্তরে আসা স্রোত তার পায়ের নখে জমছে নুন ।
লোনা ধরা সে শরীর হয়ত যে কোন সময় খশে পড়বে,
যেমন খশে পড়ে আকাশের শত, তারার মাঝে একটি অভাগা উল্কা ।
কৌতুহলি তাকে জিঙ্গাসা করলাম,
আপনি কি এখানেই থাকেন ?
একা একা এভাবে পানিতে নামছেন কেন ?
কথা তো ধুরে থাক, একবার ফিরে ও দেখলো না ।
হঠাত্‍ বির বির পায়ে নামতে লাগলো সাগরের দিক,
চেঁচিয়ে বললাম ‘ওদিকে যাবেন না’ !
বার বার বলতে লাগলাম,শুনলো না ।
দেখলাম মুহুতেই তার শরীর খসে, পড়তে পড়তে মিসে গেল সাদা-কালো ফেনিল স্রোতে ।
সাগরের বুকে এঁকে বেঁকে ভাসতে থাকলো,
তার ক্ষত-বিক্ষত সাদা থানশাড়ী ।
— মল্লিক স্বাধীন রহমান

স্বত্ব ও দায় লেখকের…

About মল্লিক স্বাধীন রহমান

আমি আমার ইচ্ছামতো থাকা পছন্দ করি । আমি চাই যতটুকু সুখ হলে একটা মানুষের জীবনে আর সুখ ধরকার হয় না ঠিক ততটুকু । আমি ভাল না থাকলে ও চলবে তবে আমি চাই আমার মা বাবা ভাল থাকুক সব সময় । আমার জীবনের একটি ই ইচ্ছা আমি একজন ভাল অভিনেতা হতে চাই, আমি ভালো অভিনয় পারি না তবে ইতিমধ্যেই আমি আমার অভিনয় দিয়ে অনেক মানুষের বাহবা কুরিয়েছি ।আমি মাঝে মাঝে কবিতা আবৃত্তি করার চেষ্টা করি যানি না কেমন হয় । আর একটু লেখালেখি করি সখ থেকে । তবে আমি জানি যে আমি কিছু ই ভাল ভাবে পারি না, শুধু মাত্র ভালো ভাবে করার চেষ্টা করি । ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা সকল কে !

Comments

  1. সাদা ফেনা স্রোত ভিজিয়ে দিল তার সাদা থানশাড়ী,
    চোখের লোনা জল চুইয়ে চুইয়ে পড়ছে, সাগরের লোনা জলে ।

    শুধু গভীর নয় আরো অনেক বেশি গভীর!
    অনেক অনেক শুভেচ্ছা, অভিন্দন রইল …

    1. আমি শুধুই লিখি কিন্তু এই লেখাকে সাজিয়ে গুছিয়ে আপনি যেভাবে উপস্থাপন করেন তার সম্পূর্ন ক্রেডিট আপনার ।
      অসংখ্য ধন্যবাদ ইনজাম ভাই ।