তবু বরষা ও নীল প্রজাপতি

bristi&u
এই বরষায় তোমায় পেলাম না।
কি অদ্ভুত অনুভুতি আমাদের!
আমার তেইশটি বসন্তের বাইশটি ছিল
কচি সবুজে আঁকা।
লাল নীল স্বপ্নগুলো তোমার ছোঁয়ায় বাঁধা।
হটাত কোন কণে দেখা আলোয়
তোমার হাতে ছিল ঘুঙুর।
ভাঁড় মাতাল সময়
আমার ভিতর স্থির করে দিল।
কোন ভর সন্ধ্যায় আমার কানে বাজে
ঘুঙুরবিহীন নৃত্যছন্দ।
পলি জমা মনের গাঙে সলাত সলাত ঢেউ।
মুঠোফোনে কত নির্ঘুম রাত কাটে
বর্ষার ঝুপঝাপ তৃষ্ণায়।
আমার তৃষ্ণায় আজ লাভা।
বৃষ্টির টুপটাপ নাচে কাঁপছে আমার শরীর।
চোখে ঝাপসা মাতলামি
হৃদকম্পন তালহীন গতি
আমার আমি যেন ঝড়ে পড়া মাঝি।
প্রতিটি লোমকূপ মাঝে তোমাকে নিয়ে বাঁচার হুংকার।
দূরে ডাকা পাখির সুরে বরষা
তবু তুমি মরীচিকাময় মরু।
আমার বরষা কাঁদে, তোমার তৃষ্ণায় ছুটে
দীর্ঘশ্বাস উড়ে বেড়ায় আমার শব্দ পালে।
অপেক্ষা নয়,
প্রতিক্ষার সাগরে ভাসাই নাও।
বিলাপের সুর চিরে ছুটে আসে সেই প্রিয় আলো।
আমার বীজ, আমার অঙ্কুরিত সবুজ আভা
আমার স্বপ্ন, আমার কৃষ্ণকায়া
আমার স্পর্শ, আমার ছোঁয়া…
অদৃশ্য সব প্রজাপতির ডানায়।

স্বত্ব ও দায় লেখকের…

Pagol KobiWriter: Pagol Kobi (12 Posts)