‘পিপীলিকা’ দেশের প্রথম সার্চ ইঞ্জিন

বাংলা নববর্ষকে উপলক্ষ করে আজ শনিবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হল প্রথম বাংলা সার্চ ইঞ্জিন ‘পিপীলিকা’।

pipilika.comবাংলাদেশে প্রথমবারের মতো তৈরি হয়েছে বাংলা ও ইংরেজি দুই ভাষাতেই কাজ করতে সক্ষম সার্চ ইঞ্জিন। �পিপীলিকা� নামে সার্চ ইঞ্জিনটি তৈরি করেছে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একদল শিক্ষার্থী। সহযোগিতায় ছিল বেসরকারি মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ ফোনের আইটি প্রতিষ্ঠান জিপিআইটি।

পিপীলিকার প্রকল্প পরিচালক হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জাফর ইকবাল, মুখ্য গবেষক ও টিম লিডার হিসেবে কাজ করেছেন রুহুল আমিন সজীব।

শাবিপ্রবির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের মোট ১১ জন ডেভেলপারের দীর্ঘ এক বছরের অক্লান্ত পরিশ্রমে দেশের প্রথম এই বাংলা সার্চ ইঞ্জিনের বাস্তবায়ন সম্ভব হলো। ওরা ১১জন— মিশু, তালহা, তালহা ইবনে ইমাম, তৌহিদ,  সাজ্জাদ, আসিফ, বাকের, অপু, ফরহাদ, আশিষ ও মাকসুদ।

এছাড়াও ৩০ জন শিক্ষার্থীর থিসিসের ওপর ভিত্তি করে এর প্রজেক্ট তৈরি করা হয়েছে। টানা তিন বছর এ নিয়ে গবেষণা করতে হয়েছে শিক্ষার্থীদের।

টিম লিডার রুহুল আমিন সজীব শনিবার পিপীলিকা উদ্বোধনের সুখবর জানিয়ে বলেন, “রাজধানী ঢাকার হোটেল রূপসী বাংলায় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় পিপীলিকার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে।

তিনি জানান, পিপীলিকা প্রজেক্টের লগো এবং ওয়েব ইন্টারফেস-এর ডিজাউন নেওয়া হয়েছে বিভাগের শিক্ষার্থী বোরহান ও চিশতির থিসিস প্রজেক্ট থেকে।

আর জিপিআইটি লিমিটেড এই প্রজেক্টের জন্য অর্থায়ন থেকে শুরু করে প্ল্যানিং, ম্যানেজমেন্ট এবং টেকনিক্যাল সেবা প্রদান করেছে। গবেষণা এবং বাস্তবায়ন হয়েছে শাবিপ্রবি কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগে শিক্ষার্থীদের দিয়ে।

বাংলাদেশে কোনো বিশ্বববিদ্যায় এবং আইটি কোম্পানির মধ্যকার সহযোগিতার মাধ্যমে তৈরি করা এটিই প্রথম প্রজেক্ট বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

পিপীলিকার বেটা ভার্সন অনুসন্ধান করে জানা গেছে, এই উন্মুক্ত ওয়েব সার্ভিসটি সারাদেশের সাম্প্রতিক গ্রহণসাধ্য তথ্য অনুসন্ধান করতে সহায়তা করে। এটি দেশের প্রধান বাংলা ও ইংরেজি পত্রিকাগুলোর সংবাদ, বাংলা ব্লগ, বাংলা উইকিপিডিয়া ও সরকারি তথ্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিশ্লেষণ ও সংরক্ষণ করে।

পিপীলিকায় তথ্য অনুসন্ধানের ৪টি ভিন্ন ধরনের সার্চ সুবিধাগুলো হলো- সংবাদ অনুসন্ধান, ব্লগ অনুসন্ধান, বাংলা উইকিপিডিয়া অনুসন্ধান ও জাতীয় ই-তথ্যকোষ।

এর সংবাদ অনুসন্ধানও কয়েকটি ভাগে বিভক্ত- সাধারণ সার্চ, স্থানভিত্তিক সার্চ ও শ্রেণীভিত্তিক (ক্যাটাগরি) সার্চ। তবে স্থানভিত্তিক ও ক্যাটাগরি সার্চ এখন শুধু বাংলার জন্য উন্মুক্ত।

পিপীলিকার ডেভলপাররা জানান, ইতোপূর্বে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিনগুলোর কোনোটিতেই বাংলা ভাষার ওপর তেমন গুরুত্বারোপ করা হয়নি। তাই, পিপীলিকায় বাংলা তথ্য বিশ্লেষণ ও অনুসন্ধানের ওপর বিশেষভাবে গুরুত্ব দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

তবে স্থানভিত্তিক ও ক্যাটাগরি সার্চ প্রাথমিকভাবে শুধু বাংলার জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে।

তারা জানান, পিপীলিকায় বাংলা সার্চের জন্য নিজস্ব একটি বাংলা অভিধান ব্যবহার করা হয়েছে। যদি ব্যবহারকারী কোনো শব্দের ভুল বানানও দেন, পিপীলিকা স্বয়ংক্রিয়ভাবে সঠিক বানান খুঁজে নিয়ে সেই নতুন শব্দ দিয়ে অনুসন্ধান চালাবে, ফলাফল দেবে এবং সঙ্গে সঙ্গে ব্যবহারকারীকে জানিয়ে দেবে তার কোন শব্দের বানান ভুল ছিল, সঠিক কোন শব্দ দিয়ে অনুসন্ধান চালানো হয়েছে।

আসন্ন বাংলা নববর্ষের জন্য শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সকলের জন্য উপহার বলে উল্লেখ করেছেন প্রকল্পের সংশ্লিষ্টরা। এখন থেকে থেকে পিপীলিকা সবার জন্য উন্মুক্ত। তাহলে আর দেরি নয় পয়লা বৈশাখের এই উপহার চাইলে ঘুরে আসতে পারেন পিপীলিকার দেশ www.pipilika.com থেকে!

Inzamamul HaqueWriter: Inzamamul Haque (160 Posts)