চিতলমারীতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, পুলিশসহ আহত ১০

Shongorshoআধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বাগেরহাটের চিতলমারীতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে লিটন শেখ (২৭) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।

খবর পেয়ে স্থানীয় বড়বাড়িয়া পুলিশ ফাঁড়ি সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলে তাদের ওপরও চড়াও হয় দু’পক্ষের লোকজন। এসময় ওই পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জসহ ১০ জন আহত হন।

সোমবার (২০ জুলাই) দুপুর আড়াইটার দিকে চিতলমারী উপজেলার চর চিংগুড়িয়া এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সংঘর্ষে আহত ১১ জনকে উদ্ধার করে চিতলমারী, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল পৌনে ৫টার দিকে লিটন শেখ টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মারা যায়। নিহত লিটন শেখ চিতলমারী উপজেলার চর চিংগুড়িয়া গ্রামের এনামুল হক শেখের ছেলে।

গুরুতর আহত আমিনুল ইসলামসহ দু’জনকে টুঙ্গিপাড়া হাসপাতাল থেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর (রেফার্ড) করা হয়।

অপরদিকে আহত বড়বাড়িয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচাজ উপ পরিদর্শক (এসআই) আবুল কাসেম ও সহকারী উপ পরিদর্শক (এএসআই) হামিদুল ইসলামসহ চার পুলিশ সদস্যকে চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি/তদন্ত) রবিউল ইসলাম বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুপুরে চিতলমারী উপজেলার বড়বাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান অহিদুজ্জামান পান্নার এক সমর্থকে (উজ্জল) ধরে নিয়ে মারধর করে প্রতিপক্ষ কলাতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বাদশা শেখ গ্রুপের লোকজন।

এ খবর ছড়ানো সঙ্গে সঙ্গে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে দুপুর আড়াইটার দিকে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করলে তারা পুলিশের উপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে পুলিশ সদস্যদের উপর দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় তারা। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে।

বাগেরহাটের অতিরিক্ত পলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান ঘটনাস্থাল থেকে বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে জানান, দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় একজন নিহত হয়েছে। উভয় পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গেলে সংঘর্ষকারীদের হামলায় এসআইসহ চার পুলিশ সদস্য গুরুতর আহত হয়। তাদেরকে চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রলে রয়েছে। ফের সংঘর্ষের আশঙ্কায় এলাকায় অতিরিক্ত ৬ প্লাটুন পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

২০ জুলাই :: স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আইএইচ/এনআরএ/বিআই
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1227 Posts)