ছাত্রলীগ কর্মী হত্যা: বাগেরহাটে ১২ জনের যাবজ্জীবন

সোমবার (২৭ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ খান মিজানুর রহমান এ রায় দেন।

রায় ঘোষণার সময় মামলার ১৫ আসামির সবাই আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত ৩ জনকে খালাস দিয়েছে।

নিহত ছাত্রলীগকর্মী শেখ আরিফ হাসান রাজু বাগেরহাট সদর উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামের নূর ইসলাম শেখের ছেলে।

Judgmentদণ্ডিতরা হলো যাত্রাপুর গ্রামের নুরো শেখ (৪০), তার ভাই আব্দুস সাত্তার শেখ (৫৪), আব্দুস সাত্তারের চার ছেলে রাজ্জাক শেখ (২৩), লাভলু শেখ (২১), নজরুল শেখ (২৮) ও শওকাত শেখ (৩০)।

আফরা গ্রামের আব্দুল কাদের শেখ (৪২), তার দুই ছেলে কামরুল শেখ (২৫) ও জিয়ারুল শেখ (২৪)।

চাঁপাতলা গ্রামের শেখ টিপু সুলতান (২২), যাত্রাপুর গ্রামের হোসেন শেখ (২১) ও শেখ ফারুক (৩৩)।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৬ সালের ৪ সেপ্টেম্বর বিকালে যাত্রাপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের কমিটি গঠন উপলক্ষে স্থানীয় লুৎফর শেখের বাড়িতে ছাত্রলীগের বর্ধিত সভা চলছিল।

সেখান থেকে দলীয় প্রতিপক্ষরা ওই বাড়ির সামনে থেকে ধরে নিয়ে রাজুকে পিটিয়ে হত্যা করে।

পরদিন রাজুর বাবা বাগেরহাট মডেল থানায় ১২ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত পরিচয় আরও তিন/চার জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বাগেরহাট মডেল থানার উপ-পরিদর্শক হাবিবুর রহমান ২০০৭ সালের ২১ জানুয়ারি ওই ১২ জনসহ মোট ১৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র প্রদান করেন।

নিহতের বাবা নূর ইসলাম শেখ দুপুরে বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে বলেন, জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জেরে আসামিরা পরিকল্পিতভাবে তার ছেলেকে হত্যা করেছে।

এই রায়ে সন্তুষ্ট নয় জানিয়ে তিনি বলেন, তার ছেলের হত্যাকারীদের আরও কঠোর শাস্তির আবেদন নিয়ে তিনি উচ্চ আদালতে যাবেন।

২৭ জুলাই :: সিনিয়র স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আইএইচ/এনআরএ/বিআই

 

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1262 Posts)