চলে গেলেন রাবি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ নাসের

ru-teacher-Nasharরাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ নাসের আর নেই।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) বেলা সোয়া ১১টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর।

ডা. মোহাম্মদ নাসের সিপিবি’র রাজশাহী জেলা কমিটির সভাপতি ও দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য। তার মৃত্যুতে সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম এবং সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ শোক জানিয়েছেন।

বাগেরহাটের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মরহুম সামছুদ্দিন ও রত্নগর্ভা রেশাতুন নাহারের ষষ্ঠ সন্তান মোহাম্মদ নাসের জেলার সামছউদ্দিন-নাহার (এসএন) ট্রাস্টের সভাপতি।

অধ্যাপক নাসেরের একুশে পদক প্রাপ্ত খ্যাতনামা কবি মোহাম্মদ রফিকের ছোট ভাই। মৃত্যকালে তিনি এক মেয়ে, স্ত্রী পরিজন ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক রেজাউল করিম জানান, সিডিউল অনুযায়ী বৃহস্পতিবার প্রফেসার ড. মোহাম্মদ নাসেরের কোনো ক্লাস ছিলো না। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পরিসংখ্যান বিভাগের একটি নির্ধারিত মিটিং ছিলো। ওই মিটিং -এ অংশ নিতে সকাল ১০টায় তিনি ক্যাম্পাসে উপস্থিত হয়েছিলেন।

বেলা ১১টার দিকে প্রফেসার নাসের বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজের চেম্বার থেকে বের হয়ে রুমের দরজায় তালা লাগাচ্ছিলেন মিটিংয়ে যাওয়ার জন্য। এসময় তিনি হঠাৎ করে মাথা ঘুরে পড়ে যান।

“পরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা মিলে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

এসএন ট্রাস্টের চিফ ফ্যাসিলিটেটর সুব্রত কুমার মুখার্জী জানান, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে মরহুমের দু’টি নামাজে জানাজা শেষে বিকেলে তার ছাত্ররা মরদেহ নিয়ে বাগেরহাটে গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে রওনা হয়েছেন।

শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) সকাল ৭টায় বাগেরহাট সদর উপজেলার চিতলী-বৈটপুরের উদ্দীপন বদর সামছু বিদ্যানিকেতন প্রাঙ্গণে মরহুমের তৃতীয় নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন করা হবে।

১৯৫৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি বাগেরহাটের বেমর্তা ইউনিয়নের বৈটপুর চিতলী গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

ড. মোহাম্মদ নাসের জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া শেষ করে ১৯৮৫ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিসংখ্যান বিভাগে শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী তালাইমারী এলাকার অক্ট্রয় মোড়ে স্ত্রীকে নিয়ে তিনি একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন।

অধ্যাপক নাসেরের মৃত্যুতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন, শিক্ষক সমিতি, বাগেরহাট জেলা সিপিবি, উদ্দীপন-বদর-শামছু বিদ্যানিকেতন, এসএন ট্রাস্টসহ বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সমবেদনা জানানো হয়েছে।

২৮ জানুয়ারি :: স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আইএইচ/এনআরএ/বিআই
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)