রামপাল প্রকল্প বাতিলে সরকারকে ১৫ মে পর্যন্ত আল্টিমেটাম

Bagerhat-Pic-1(13-03-2016)রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিলে সরকারকে ১৫ মে পর্যন্ত আল্টিমেটাম দিয়ে সুন্দরবন অভিমূখে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির ৪ দিনের ‘জনযাত্রা’ কর্মসূচি শেষ হয়েছে।

রোববার (১৩ মার্চ) বিকালে বাগেরহাটের কাটাখালী মোড়ে জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ ‘জনযাত্রা’ কর্মসূচির ঘোষণা পত্র পাঠ করেন।

জনযাত্রা ঘোষণায় সরকারকে সুন্দরবন বিধ্বংসী রামপাল ও ওরিয়নের তাপবিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিল করতে ১৫ মে পর্যন্ত আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। এর মধ্যে এই প্রকল্প বাতিল করা না হলে দেশের সর্বস্তরের জনগনকে সাথে নিয়ে ঢাকা মুখি লংমার্চ, অবস্থান কর্মসূচী, হরতাল, ঘেরাওসহ কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে জানানো হয়।

জনযাত্রা ঘোষণয় তিনি বলেন, যে সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য সারা দেশের ভারসাম্য রক্ষা করছে সেই সুন্দরবন এখন বাংলাদেশ ও ভারতের মুনাফাখোরদের হাতে খুন হতে চলেছে। অবিলম্বে সুন্দরবন নীতিমালা প্রনয়ন ও বাস্তবায়ন করতে হবে।

জনগনকে নিয়েই আমাদের আন্দোলন- আমারা এই আন্দোলনে মানুষের অভুতপূর্ব সাড়া পেয়েছি। এরপরও সরকার সুন্দরবন বিনাশী এ প্রকল্প থেকে সরে না আসলে কঠোর কর্মসূচী গ্রহন করা হবে।

আমরা কোন ভাবেই মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশকে অরক্ষিত হতে দিতে পারি না মন্তব্য করে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, সুন্দরবন বিনাশী এই কর্মকান্ড বন্ধ করতে জনযাত্রার এই কর্মসূচী অব্যহত থাকবে- যতদিন না সুন্দরবন বিনাশী প্রকল্প বাতিল হয়, যতদিন না বঙ্গোপসাগর নিরাপদ হয়। যতদিন না বাংলাদেশের মানুষের উপর বাংলাদেশীদের কর্তত্ব প্রতিষ্ঠা হয়। এই আন্দোলন চলবে।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সুন্দরবনের কাছে কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র হলে প্রায় ১০ লক্ষ মানুষের জীবিকা হারাবে। এর প্রভাবে উপকূলের ৪ কোটি মানুষের জীবন ও সম্পদ ভয়াবহ হুমকির মুখে পড়বে। ভয়াবহ এই প্রকল্পের মাধ্যমে সরকার বাংলাদেশকে অরক্ষিত করছে।

সরকারের উচিৎ দেশ ও জনগনের ক্ষতির কথা বিবেচনা করে  এ প্রকল্প বাতিল করা ।

সমাবেশে অনান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, গনসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জোনায়েক সাকী, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) নেতা সরদার রুহিন হোসেন প্রিন্স, বিমল বিশ্বাষ, বজলুল রশিদ ফিরোজ, নজরুল ইসলাম, মোশরেফা মিশু, শুভ্রাংশু চক্রবতী, রনজীত চট্টপধ্যায়, ফকরুল হাসান জুয়েল, এ্যাাড. ডাকুয়া মুসসুর আলী, রেজাউল করিম, তুষার কান্তি দাস প্রমুখ।

কাটাখালিতে সমাবেশ ও জনযাত্রা ঘোষণার মধ্য দিয়ে ৭ দফা দাবিতে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সুন্দরবন অভিমূখে জনযাত্রা কর্মসূচি শেষ হয়।

১৩ মার্চ :: স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আইএইচ/এনআরএ/বিআই
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)