সুন্দরবনে দস্যু সন্দেহে গ্রেপ্তার ২, অস্ত্র উদ্ধার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

সুন্দরবন থেকে আগ্নেয়াস্ত্রসহ দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান (র‌্যাব-৮)।

শনিবার (৬ মে) দুপুরে দস্যুতার অভিযোগে সুন্দরবন পূর্ব বনবিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের জোংড়ার খাল এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

এরা হলেন- বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার সুলতানিয়া গ্রামের আবু তালেব শেখের ছেলে মো. খলিল শেখ ওরফে রাঙ্গা মিঞা (৩২) ও একই উপজেলার কালিকাপ্রসাদ গ্রামের কাওছার আলী মোল্লার ছেলে মো. নজরুল ইসলাম মোল্লা (৪২)।

র‌্যাবের ভাষ্য, তারা দু’জনই সুন্দরবনের কথিত দস্যু ‘বড় ভাই বাহিনী’র সক্রিয় সদস্য। গ্রেপ্তারের সময়ে তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশি একনলা বন্দুক, একটি বিদেশি দোনালা বন্দুক এবং দুটি বিদেশি কাটা রাইফেল ও ১৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব-৮ এর উপঅধিনায়ক মেজর আদনান কবির বলেন, দুপুরে নিয়মিত টহলের সময় র‌্যাবের একটি দল বাইনোকুলারের মাধ্যমে সুন্দরবনের জোংড়ার খাল থেকে বনের ভেতর কয়েকজনকে দাড়িয়ে থাকতে দেখেন। র‌্যাব সদস্যদের দেখে তারা দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে।

এসময় র‌্যাব তাদের ধাওয়া করে দুজনকে গ্রেপ্তার করে। তবে অন্যরা অস্ত্র ফেললে পালিয়ে যায়।

গ্রেপ্তারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বনদস্যু বড় ভাই বাহিনীর সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করেছে বলে দাবি করেন ওই র‌্যাব কর্মকর্তা।

মেজর আদনান বলেন, বড় ভাই বাহিনীর দস্যুদের বিরুদ্ধে বনের ওই এলাকায় জেলে, বাওয়ালী ও মৌয়ালদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। গ্রেপ্তার পর উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গুলিসহ তাদের খুলনার দাকোপ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এজি//এসআই/বিআই/০৬ মে, ২০১৭

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)