উত্ত্যক্তের দায়ে দণ্ডিত যুবকের হামলায় আহত কলেজছাত্রীর বাবা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাটের চিতলমারীতে কলেজছাত্রীকে উত্ত্যক্তের দায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত এক আসামী জামিনে মুক্ত হয়ে ওই ছাত্রীর বাবাকে কুপিয়ে জখম করেছে।

বৃহষ্পতিবার (১৮ মে) সকালে চিতলমারী উপজেলার বড়বাড়িয়া ইউনিয়নের মইজোড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহত দবির উদ্দিন শেখ (৫৫) মইজোড়া গ্রামের প্রয়াত সাহেব উদ্দিন শেখের ছেলে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্র জানায়, বাড়ি থেকে বেরিয়ে বাজারে যাওয়ার পথে মেয়ের উত্ত্যক্তকারীরা দবির উদ্দিনের উপর হামলা করে।

আহত দবির উদ্দিন শেখ বলেন, কলেজে যাওয়া-আসার পথে মুজিবর শেখ নামে এক বখাটে যুবক প্রায়ই আমার মেয়ে উত্ত্যক্ত করত। বিষয়টি লিখিত ভাবে উপজেলা প্রশাসনকে জানালে তারা ওই যুবককে কারাদণ্ড দেন।

ওই যুবকের নেতৃত্বে ৭-৮ জন সকালে আমার পথ আটকে এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করে এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে হাতে ও পায়ে কোপায়।

হামলার অভিযোগ ওঠা মুজিবর শেখ (২৫) মইজোড় গ্রামের তোরাব আলী শেখের ছেলে।

চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রেজাউল করিম জানান, উপজেলার বড়বাড়িয়া আইডিয়াল কমার্স কলেজ থেকে চলতি বছর এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়া এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের দায়ে গত এপ্রিলে মুজিবর শেখকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তাকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয় আদালত। গত সোমবার মুজিবর জামিনে মুক্তি পান।

‘সকালে মুজিবর ও তার সহযোগীরা লাঠিসোটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে দবির উদ্দিনের ওপর হামলা চালায়। এসময় তারা দবিরকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ও কুপিয়ে পালিয়ে যায়।’

পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মামুন হাসান বলেন, দবির উদ্দিনের ডান পা ভেঙে গেছে। এছাড়া দুই হাত ও পায়ে একাধিক জখমের চিহ্ন রয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য দুপুরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় বলেন, মুজিবর শেখসহ হামলাকারীদের ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।

এজি//এসআই/বিআই/১৯ মে, ২০১৭

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1300 Posts)