যাত্রীবাহী বাস খালে, দু’জনের লাশ উদ্ধার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাটের কচুয়ায় যাত্রীবাহী একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের খালে পড়ে নারীসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। 

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে কচুয়া উপজেলার বকুলতলার কাছে বাগেরহাট-পিরোজপুর আঞ্চলিক মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে বাসের অন্তত ৪০ যাত্রী কমবেশি আহত হয়েছেন।

নিহত দু’জনের মধ্যে একজনের পরিচয় জানা গেছে। তার নাম মনিরা বেগম (৩৫)। বাড়ি পিরোজপুরের নাছিরাবাদের রাহুদকাঠি গ্রামে।

নিহত দু’জনের লাশ বাগেরহাট সদর হাসপাতালে মর্গে রাখা হয়েছে।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল কবির বলেন, খুলনা থেকে পিরোজপুরগামী বাসটি (ঢাকা মেট্রো-র-০২-০২৩৭) বকুলতলা কাছে পাইকবাড়ি রাস্তার মাথায় এলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারান। এতে বাসটি রাস্তার পাশে খালে পড়ে যায়। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি দল উদ্ধার কাজ শুরু করে।

বাসটিতে কতজন যাত্রী ছিল তা নিশ্চিত করে বলতে পারেনি পুলিশ।

তবে প্রতক্ষদর্শী ও বাসের যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, খুলনা থেকে ছেড়ে আসা বাসটিতে অন্তত ৭০ জন যাত্রী ছিল। 

বাসের যাত্রী সেতারা বেগম (৫০) বলেন, খুলনার সোনাডাঙ্গা বাসস্টান্ড থেকে সাড়ে ১১টার দিকে পিরোজপুরের উদ্দেশ্যে বাসটি ছেড়ে আসে। বাসের ভেতর অনেক যাত্রী দাড়িয়ে ছিল। এছাড়া ছাদেও যাত্রী ছিল। সাড়ে ১২টার কিছু পরে বাসটি চলতে চলতে পানির মধ্যে পড়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী কচুয়ার আফরা গ্রামের জোহরা বেগম বলেন, বাসটির ছাদেই অন্তত ২০ জন যাত্রী ছিল।

বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক (ডিএডি) মাসুদুর রহমান সরদার বলেন, পানির নিচে থাকা বাসের ভেতর থেকে নারীসহ চারজনকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। খালটি বেশ গভীর থাকায় খুলনা থেকে আমাদের ডুবুরি এসে বাসের ভেতর তল্লশী করেছে। তবে আর কাউকে পাওয়া যায়নি।

হাসপাতালে নেওয়া হলে নারীসহ দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

বাগেরহাট সদর হাসপাতালে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মনীষা মণ্ডল বলেন, পানিতে ডুবে যাওয়া চারজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। এর মধ্যে নারীসহ দুজনকে আমরা মৃত অবস্থায় পেয়েছি। অন্য দুজনকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এইচ//এসআই/বিআই/১৪ নভেম্বর, ২০১৭

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1300 Posts)