সড়কের মাটি কেটে নিচ্ছিল ইটভাটা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাটে একটি সেতুর সংযোগ সড়কের জমি থেকে মাটি কেটে নিচ্ছিল এক ইটভাটা মালিক। দীর্ঘ গর্ত করে মাটি নেওয়ায় সড়কটি ঝুঁকির মুখে পড়েছে, বলছে সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগ।

বাগেরহাটে মুনিগঞ্জ সেতু সংলগ্ন এমবিআই ব্রিকস নামের ওই ইটভাটার মালিক মো. মিজানুর রহমান মনি।

রোববার (২৮ জানুয়ারি) পুলিশ ওই ইটভাটার একটি মাটি কাটার যন্ত্র (এক্সকাভেটর) জব্দ করেছে। এরআগে শনিবার রাতে ইটভাটার মালিকের বিরুদ্ধে বাগেরহাট মডেল থানায় মামলা করেছে সড়ক বিভাগ।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের বাগেরহাট কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আনিসুজ্জামান মাসুদ বলেন, বাগেরহাট সদরের ভৈরব নদের ওপর নির্মিত মুনিগঞ্জ সেতু জেলা সদরের সঙ্গে চিতলমারী উপজেলাসহ সদর ও কচুয়া উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ স্থাপন করেছে। সেতুর পূর্ব দিকের অ্যাপ্রোচ সড়কের দুই পাশে সড়ক বিভাগের প্রায় ১২০ ফুট জমি রয়েছে।

বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে তিনি বলেন, গত কয়েক দিন ধরে এমবিআই ব্রিকস নামের ইটভাটার জন্য এক্সকাভেটর দিয়ে সড়কের মাটি কেটে নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ ওঠে। বাগেরহাট-চিতলমারী (জেড-৭৭০৮) জেলা মহাসড়কের মুনিগঞ্জ সেতুর অ্যাপ্রোচ সড়কের বাঁ পাশের (উত্তর পাশের) জমি থেকে ইটভাটার জন্য রাতের আঁধারে মাটি কেটে নেওয়া হচ্ছিল। অবৈধভাবে মাটি কাটায় সড়কটি এখন ঝুঁকিতে পড়েছে।

‘শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ওই ইটভাটা মালিকের বিরুদ্ধে একটি মামলা করা হয়েছে। সওজের উপসহকারী প্রকৌশলী এইচ এম সোয়েব হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি করেন।’

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাতাব উদ্দিন বলেন, সড়ক বিভাগের কাছ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়ে মামলা নেওয়া হয়েছে। মাটি কাটার কাজে ব্যবহৃত এক্সকাভেটরটি জব্দ করা হয়েছে। ইটভাটার মালিককে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে ইটভাটা মালিক মিজানুর রহমান মনির মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি সাংবাদিক পরিচয় দেওয়ার পর ‘পরে কথা বলছি’ বলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

এইচ//এসআই/বিআই/২৮ জানুয়ারি, ২০১৮

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1499 Posts)