মধ্যবিত্ত প্রেমকাব্য | সুরাইয়া হেনা

কথা ছিলো,
কোনো এক শীতের ভোরে একটা চাদর হবে আমাদের,
এক চাদর দুজন জরিয়ে পাশাপাশি উষ্ণ হবো খানিক,
ধোঁয়া ওঠা চায়ের কাপে চুমুক হবো ঘোর ধরা সন্ধ্যায়,
চোখাচোখি হলেই পড়ে থমকে যাওয়া ভাঙ্গাচোরা নষ্ট ঘড়ি হবো।

কথা ছিলো,
একদিন খুব করে প্রেমিক-প্রেমিকা হবো দুজনে
পার্কের কোণঘেঁষা জায়গাটায় চুপটি করে বসে রবো,
তুমি হঠাৎ করেই হাতটা ছোঁয়ার দুঃসাহস করে নেবে নাহয়।

তারপর একদিন,
প্রেম প্রেম পাট চুকিয়ে সংসারী হবো আমরা,
একগাদা অভিযোগ,অভিমানে আষ্টেপৃষ্ঠে পাশাপাশি কাটিয়ে দিবো কয়েক কোটি বছর।

আজকাল খবরটা নেয়া হয়না তোমার ঠিক করে,
চাকরীর খোঁজে ঘুরেঘুরে গত মাসের স্যান্ডেল জোড়াও আহত নিশ্চয়ই!
সবটা সামলাতে খুব বেশিই ব্যস্ততা আমার।

প্রেমের শহরে সুখ সুখ স্বপ্নটা সস্তায় পাওয়া গেলেও সুখ মেলে কি?
উচু অফিসে নরম চেয়ারে হেলান দেয়া কিংবা রিক্সার চাকা ঘোরানো শরীরটা,
দিন শেষে থুথুতে আঙ্গুল ভিজিয়ে গুণে নেয় সুখি হওয়ার পরিমাণটা।
স্বপ্নটা বেচে তাই দিব্যি বেঁচে আছি দেখলে!
তুমিও তো দিব্যি টিকে আছো বাস্তবতার গলিটায়।

তবুও স্বামী, সন্তান আর ছেঁড়াখোঁড়া সংসারটা সামলে,
নিজের নামে পাওয়া মিনিট দুয়েকে,
তোমার তৃষ্ণায় মরে যাই একেকটি ভোর কিংবা সন্ধ্যায়!
সময় স্বল্পতায় ভাগ্যকে দায়ভার তুলে দেয়া হয়না সুইসাইড নোটে।
মন,আত্মার মরে যাওয়ায় শব্দ খরচেও ভাবতে হয় আজকাল,
বিলাসিতার সুযোগ কই?
বড় বেশি অভাব চলছে যে!

এসআই/বিআই/১৬ জানুয়ারি, ২০১৭

সুরাইয়া হেনাWriter: সুরাইয়া হেনা (9 Posts)