বাংলাদেশ নৌ-বাহিনীর জাহাজ ‘বিশখালী’র ডি-কমিশনিং

Bagerhat-pic-01(20-05-2014)বীর শ্রেষ্ঠ রুহুল আমিনের স্মৃতি বিজড়িত বাংলাদেশ নৌ-বাহিনীর জাহাজ ‘বিএনএস বিশখালীকে’ আনুষ্ঠানিকভাবে ডি-কমিশন করা হয়েছে।

দীর্ঘ প্রায় ৩৬ বছর সফলতার সঙ্গে অপারেশনাল কর্মকাণ্ড পরিচালনার পর নৌ-বহর থেকে বিশখালীকে ডি-কমিশনিং করা হলো।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বাগেরহাটের মংলায় অবস্থিত নৌ-জেটিতে খুলনা নৌ-অঞ্চলের আঞ্চলিক কমান্ডার কমডোর শাহীন ইকবাল (ট্যাজ), এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, বিএন নৌ-বাহিনীর ঐতিহ্যবাহী রীতিতে জাহাজটিকে নৌ-বহর থেকে ডি-কমিশনের অনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন।

এ সময় খুলনা নৌ-অঞ্চলের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারাসহ নাবিকরা উপস্থিত ছিলেন।

১৯৭৮ সালের ২৩ নভেম্বর বানৌজা বিশখালী নৌ-বাহিনীতে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে। তৎকালীন নৌ-বাহিনী প্রধান রিয়াল অ্যাডমিরাল এম এ খান জাহাজটিকে নৌ-বাহিনীতে কমিশনিং করেন।

এর আগে জাহাজটি ১৯৬৬ সালে ইংলান্ড থেকে সংগ্রহ করে পূর্ব পাকিস্তানে এন পিএনএস যশোর নামকরণ করা হয়।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে জাহাজটি কর্নফুলী নদীতে ডুবে যায়। ১৯৭৪ সালে জাহাজটি উদ্ধার করে খুলনা শিপইয়ার্ডে নতুন ইঞ্জিন, জেনারেটর ও অন্যান্য মেশিনারিজ সংযোজনের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ সংস্কার করা হয়।

পরবর্তীতে জাহাজটি অপারেশনাল সীমাবদ্ধতার কারণে নৌ-বাহিনীর বহর থেকে ডি-কমিশনিংয়ের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

২০ মে ২০১৪ :: মাহবুবুর রহমান মুন্না, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এসআই হকনিউজরুম এডিটর/বিআই
ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)