বাগেরহাটে হত্যা মামলায় ৪ জনের যাবজ্জীবন

ছবি: প্রতীকীবাগেরহাটে এক ভ্যান চালককে হত্যার দায়ে চার জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত।

একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে।

বাগেরহাট দায়রা জজ আদালতের বিচারক মিজানুর রহমান খান বুধবার (১৯ আগস্ট) দুপুরে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার কাষ্ঠবাড়িয়া গ্রামের এনামুল মোল্লা (২০), আল আমিন শেখ (২১), জাহিদ গাজী (২৩) এবং একই উপজেলার খাজুরা গ্রামের এখলাস ওরফে আসাদুল কবির (২৩)।

এদের মধ্যে আল আমিন শেখ পলাতক। দন্ডপ্রাপ্ত বাকি তিনি আসামি রায় ঘোষনার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার শ্রীকলস গ্রামের জাহাঙ্গীর বেহারার ছেলে জাকারিয়া বেহারা ভ্যান নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও জাকারিয়ার পরিবার তার কোন সন্ধান পাচ্ছিল না।

পরদিন ১৫ ফেব্রুয়ারি সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে জেলার ফকিরহাট উপজেলার পিলজংগ গ্রামের পশ্চিমপাড়ার একটি খেজুর বাগান থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় রাতেই নিহতের মা শরীফা বেগম বাদী হয়ে ফকিরহাট থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলা তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ ফকিরহাট উপজেলার খাজুরা গ্রামের আওয়াল শেখের বাড়ি থেকে ভ্যানটি উদ্ধার করে পুলিশ। পরে আওয়াল শেখকে জিজ্ঞাসাবাদের মধ্য দিয়ে হত্যাকারীদের শনাক্ত এবং হত্যার কারণ চিহ্নিত করা হয়।

২০০৯ সালের ১৩ আগস্ট মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফকিরহাট থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইশারাত হোসেন আসামি আওয়াল শেখসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

মামলা চলাকালে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে বেলাল শেখ নামে এক আসামি নিহত এবং চলতি মাসের ৯ তারিখে বাগেরহাট কারাগারে আটক অবস্থায় অসুস্থ হয়ে আওয়াল শেখ মারা যাওয়া তাদের মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

১২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বুধবার আদালত এ রায় দেয়।

১৯ আগস্ট :: স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।
এস/আইএইচ/এনআরএ/বিআই
বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1304 Posts)