বাবা হত্যায় ছেলে, ভাই হত্যায় ভাইয়ের মৃত্যুদণ্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

LAW-Judgmentবাগেরহাটে বাবাকে হত্যার দায়ে ছেলেকে ও ছোট ভাইকে হত্যার দায়ে বড় ভাইকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) দুপুরে বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ মো. ফজলুল হক এবং অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহম্মদ রেজাউল করিম পৃথক এ দুই রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- জেলার মোরেলগঞ্জ উপজেলার ঢেউয়াতলা গ্রামের অমূল্য বৈরাগীর ছেলে ভবসিদ্ধু বৈরাগী (৩৮) ও মোল্লাহাট উপজেলার তুহিন কাজী (২৭)।

রায় ঘোষণার সময় তুহিন কাজী আদালতে উপস্থিত ছিলেন। ভবসিদ্ধু বৈরাগী পলাতক রয়েছেন।

একই সঙ্গে আদালত তুহিনকে ২০ হাজার ও ভবসিদ্ধুকে পঞ্চাশ হাজার টাকা অর্থদণ্ডও করেছে।

অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ভবসিদ্ধু বৈরাগীর স্ত্রী আঁখি বৈরাগীকে খালাস দিয়েছে আদালত।

মামলার বরাত দিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী শেখ মোহম্মদ আলী বলেন, পারিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে ২০১৪ সালের ৫ অগাস্ট ভোরে তুহিন তার বাবা আবু সাঈদ কাজীকে ঘুমন্ত অবস্থায় ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে সুমী আক্তার ভাই তুহিন কাজীকে আসামি করে মোল্লাহাট থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। তদন্ত শেষে মোল্লাহাট থানার এসআই তুহিন মণ্ডল ২০১৫ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি তুহিনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

রাষ্ট্রপক্ষের সহকারী আইনজীবী সীতা রাণী দেবনাথ অপর মামলার বরাত দিয়ে বলেন, মোরেলগঞ্জ উপজেলার ঢেউয়াতলা গ্রামের ভবসিদ্ধু বৈরাগীর সঙ্গে তার ছোট ভাই অখিল বৈরাগীর (১৮) পৈত্রিক জমিজমা নিয়ে বিরোধ ছিল।

“এর জেরে ২০০৮ সালের ১৭ মার্চ সকালে অখিল তার মাছের ঘেরে কাজ করার সময় ভবসিদ্ধু সেখানে গিয়ে অখিলকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে।”

সীতা রাণী জানান, এ ঘটনার পরদিন নিহতের চাচাত ভাই গুরুদাস বৈরাগী বাদী হয়ে ভবসিন্ধু ও তার স্ত্রী আঁখির বিরুদ্ধে মোরেলগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সেকেন্দার আলী ওই বছরের ১৮ জুন অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

এজি/এসআই/বিআই/৩০ আগস্ট, ২০১৬

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1301 Posts)