বাগেরহাটে হরিণের মাংসসহ আটক ১

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

সুন্দরবন থেকে শিকার করে আনা হরিণের মাংসসহ এক ব্যক্তিকে আটক করেছে বাগেরহাট জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

আটক আব্দুর ছত্তার ওরফে তায়েব আলীকে (৫৫) রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকালে আদালতের মাধ্যমে বাগেরহাট জেলা করাগারে পাঠানো হয়েছে।

আব্দুর ছত্তার সাতক্ষিরা জেলার আশাশুনি উপজেলার একসরা গ্রামের মনিরউদ্দিন ছানার ছেলে। তিনি পেশাদার হরিণের মাংস বিক্রেতা বলে দাবি ডিবি’র।

আটকের পর তার কাছ থেকে ১৩ কেজি হরিণের মাংস উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানায় ডিবি। তবে বাগেরহাট মডেল থানা পুলিশের এক কর্মকর্তা উদ্ধার হওয়া মাংসের পরিমান ৪১ কেজি বলে প্রথমে স্বীকার করেছিলেন।

বাগেরহাট জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইউনুচ আলী বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার চিতলী বৈটপুর বাজার এলাকা থেকে ডিবির একটি দল আব্দুর ছত্তারকে আটক করে। এসব তার কাছ থেকে ১৩ কেজি হরিনের কাঁচা মাংস উদ্ধার করা হয়।

ওই ঘটনায় হরিণের মাংসসহ আটক আব্দুর ছত্তারের বিরুদ্ধে বণ্যপ্রাণী নিধন আইনে ডিবির এসআই গাজী ইকবাল বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। উদ্ধারকৃত মাংস আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী ধ্বংস করার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

অপর একটি সূত্র বলছে, বাগেরহাট শহরের জনৈক এক ব্যক্তি কাছে বিক্রির উদ্দেশ্যে ৪১ কেজি হরিণের মাংস নিয়ে আসেন আব্দুস ছত্তার। কিন্তু আব্দুস ছত্তার আটকের পর ডিবি হেফাজতে হরিনের মাংসের পরিমানটি কমে যায়।

এদিকে নাম প্রকাশ করতে রাজি না হওয়া থানা পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, বাসাবাটি এলাকার অপু নামে এক ব্যক্তির কাছে বিক্রির জন্য আব্দুর ছত্তার সাতক্ষীরা থেকে ওই মাংস নিয়ে এসেছিলেন। পরে অবশ্য ওই অভিযান ডিবির এবং বিষয়টি তাদের (ডিবর) উল্লেখ করে তা এড়িয়ে যান।

এদিকে, উদ্ধারের পর পুলিশ হেফাজতে হরিণের মাংস কমে যাওয়ার বিষয়ে শহর জুড়ে নানা গুঞ্জন থাকলেও ডিবি’র ওসি এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

এএটি/এসআই/বিআই/১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1270 Posts)