অবৈধভাবে বালু তোলায় পোড়ানো হলো ৪ ড্রেজার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাটের ভৈরব নদ থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত চারটি ড্রেজার মেশিন আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছেন।

বৃহষ্পতিবার (১৩ এপ্রিল) দুপুরে শহরের দড়াটানা সেতু এলাকায় অভিযান চালিয়ে ড্রেজারগুলোকে জব্দ করা হয়। পরে সেগুলো পুড়িয়ে ধ্বংস করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নুরুল হাফিজ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. নাজমুল হুদার নেতৃত্বে অভিযানকালে ড্রেজার ফেলে রেখেই পালিয়ে যায় অবৈধ বালু ব্যবসায়ীরা।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. নুরুল হাফিজ বলেন, বাগেরহাট শহরের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া দড়াটানা ও ভৈরব নদের বিভিন্ন এলাকায় ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছিল একটি মহল। খবর পেয়ে দড়াটানা সেতু সংলগ্ন এলাকা থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত ৪টি ড্রেজার জব্দ করা হয়।

কোন প্রকার অনুমতি ছাড়াই বালু তোলায় হুমকির মুখে পড়েছে দড়াটানা সেতু এবং পাড়ের গ্রামবাসী।

জব্দকৃত ড্রেজারগুলো আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে ড্রেজারের পাইপও কেটে দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, গত কয়েক বছর ধরে প্রভাবশালী একটি মহল নদীর পুঁটিমারী, রাধাবল্লভ, ফতেপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে ব্যবসা চালিয়ে আসছেন। অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের কারনে বর্ষা মৌসুমে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভেড়িবাঁধ ফাটলসহ ভাঙ্গন দেখা দেয়।

কয়েকবার বাঁধ ভেঙ্গে রাধাবল্লবসহ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। তাই অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে দাবি জানান তারা।

ইউএনও নুরুল হাফিজ বলেন, আশাকরি আর কেউ এ ধরনের অপরাধে যুক্ত হবে না। এরপরও যদি কেউ অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের চেষ্টা করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এজি//এসআই/বিআই/১৩ এপ্রিল, ২০১৭

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1304 Posts)