বাগেরহাটে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী টুকু; প্রস্তাব নিয়ে সংসদে আসতে হবে

শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থে বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়াকে সংসদে প্রস্তাব নিয়ে আসতে হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু।

BagerhatNews19.04.13শুক্রবার সকালে বাগেরহাট স্বাধীনতা উদ্যানে ‘সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে আলেম সমাজের ভূমিকা’ শীর্ষক ওলামা সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

দেশে চলমান রাজনৈতিক অচলাবস্থার দুই নেত্রীর সংলাপের বিষয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়াকে শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কিভাবে করা যায় সে প্রস্তাব নিয়ে সংসদে আসতে হবে। সংসদেই আলোচনার ক্ষেত্র তৈরি হতে পারে।”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “বর্তমান সরকার ইসলাম তথা ইমাম-মাশায়েকদের জন্য মসজিদ ও মাদ্রাসায় হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করছে। কারণ আলেম-ওলামারা দেশের শান্তি-শৃখলা রক্ষার পাশাপাশি জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কথা বলবেন। অথচ হেফাজতে ইসলাম বিএনপির-জামায়াতের সঙ্গে হাত মিলিয়ে দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা বিনষ্ট করে অস্থিতীশীল করার ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে।”

তিনি হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন “তারা যদি নাশকতা কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়েন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইন-শৃখলা বাহিনী ব্যবস্থা নেবে। যারা নাশকতা সৃষ্টি করে সরকারি বেসরকারি স্থাপনা ধ্বংস করছে সেটা ধর্মের নামেই হোক বা যেকোনো আদলেই হোক তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।”

BagerhatNews19.04.13(2)বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ শুকুর আলীর সভাপতিত্বে ওলামা সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি বাগেরহাট ৪ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মোজাম্মেল হোসেন, বাগেরহাট সদর আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মীর শওকত আলী বাদশা, পুলিশ সুপার খন্দকার রফিকুল ইসলাম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো. আনিসুজ্জামান শিকদার প্রমুখ।

পরে বাগেরহাট জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত বিশেষ আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির হিসাবে অংশ নেন তিনি। জেলা প্রশাসক মো: শুকুর আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাগেরহাট ৪ আসনের এমপি ডা. মোজাম্মেল হোসেন, বাগেরহাট-২ আসনের এমপি অ্যাড. মীর শওকাত আলী, বাগেরহাট জেলা পরিষদের প্রশাসক শেখ কামরুজ্জামান ও বাগেরহাটের পুলিশ সুপার খন্দকার রফিকুল ইসলাম।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বাগেরহাট পৌরসভার মেয়র খান হাবিবুর রহমান, বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খান মুজিবর রহমান, রামপাল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুর রউফ, অ্যাড. শাহ-ই- আলম বাচ্চু প্রমুখ।

এসময় সুন্দরবন অঞ্চলের বনদস্যুদের সর্ম্পকে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে দস্যুদের পক্ষ থেকে যদি আত্মসর্মপনের কোন প্রস্তাব নিয়ে আসে তাহলে ভেবে দেখা হবে। এছাড়া তাদের সাথে কোন আপস নেই। দস্যুতা যারাই করবেন তাদের কঠোর হস্তে দমন করা হবে’। পরে তিনি বাগেরহাট জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আইন শৃংখলা বিষয়ক এক মত বিনিময় সভায় যোগদান করেন।

এদিকে আজ বিকেলে প্রতিমন্ত্রী বাগেরহাট সদর উপজেলার মুক্ষাইট গ্রামে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি স্তম্ভ ও একটি কলেজিয়েট স্কুলের উদ্বোধন করেন।

উল্লেখ, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিন দিনের সফরে বাগেরহাটে পৌঁছান স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু।

ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)