বাগেরহাটে হেফাজত-পুলিশ সংঘর্ষে নিহত ১

বাগেরহাটে হেফাজতের সমর্থক ও পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষে অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবক নিহত: পুলিশ, সাংবাদিকসহ ২২ জন আহত।

ঢাকায় হেফাজতের সমাবেশে সংঘর্ষের ঘটনার পর বাগেরহাটের মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে সোমবার দুপুরে পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষের সময় এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

সোমবার সকাল ৮টা থেকে খুলনা-মংলা সড়কের চুলকাঠি ও কাটাখালী মোড় এবং বাগেরহাট-খুলনা সড়কের টাউন নওয়াপাড়া ও কাঁঠালতলা এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বাগেরহাটের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় জানান, বাগেরহাট থেকে ঢাকায় হেফাজতে ইসলামের সমাবেশে যোগ দিতে গিয়ে কয়েকজন কর্মী পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন- এমন খবরে হেফাজতকর্মীরা সকালে চুলকাঠিতে জড়ো হয়ে সড়ক অবরোধ ও ভাংচুর করে। পুলিশ তাদের সরে যেতে বললে তারা হামলা শুরু করে।

“পুলিশ ও র‌্যাবের দলটি পিছু হটে খুলনা-বাগেরহাট সড়কের টাউন নওয়াপাড়া এলাকায় একটি কারখানায় অবস্থান নিলে হেফাজতকর্মীরা কারখানা ঘিরে ফেলে এবং ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করে। পরে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে কারখানা থেকে অবরুদ্ধ সদস্যদের বের করে আনেন।”

এ সময় হেফাজত কর্মীরা সংঘর্ষে জড়ালে অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবক নিহত হন বলে তিনি জানান।

এদিকে, প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতের সংখ্যা একজন নিশ্চিত করলেও হেফাজতের নেতাকর্মীরা দাবি করেছেন তাদের দুই কর্মী নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন মতি উদ্দিন শেখের ছেলে সাইফুল ইসলাম মেঝে (৩৯)। আরেকজনের পরিচয় জানা যায়নি।

এ ঘটনায় আহতদের ফকিরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, বাগেরহাট ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংঘর্ষের সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন আব্দুল আজীজ (২৫), আলামিন (২০) ও হাফিজ (৪০) নামে তিন জন।

খুলনা মেডিকেলে দায়িত্বরত কনস্টেবল হারুন আর রশিদ জানান, দুপুর ৩টার দিকে বাগেরহাটে সংঘর্ষে নিহত অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের লাশসহ তিন থেকে চার জন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে।

এদিকে ঘটনার পর থেকে চরম উত্তেজনা কর পরিস্থিতি বিরাজ কারছে শহরে।

০৬.০৫.২০১৩ :: বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।

ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)